সিলেট নগরীতে আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎলাইন উদ্বোধন করলেন মোমেন, ছিলেন না আরিফ

প্রকাশিত: 10:59 PM, January 17, 2020

সিলেট নগরীতে আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎলাইন উদ্বোধন করলেন মোমেন, ছিলেন না আরিফ

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : বৈদ্যুতিক খুঁটি আর তারের জঞ্জালবিহীন একটি সড়কের ছবি সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। গণমাধ্যমেও বেশ আলোচিত হয় এই সড়কটি। সিলেট নগরীর দরগাহ গেইট এলাকার এই সড়ক বদলে যায় একটি প্রকল্পের কারণে। ভূ-গর্ভস্থ বৈদ্যুৎ সঞ্চালন’ লাইন নামের এই প্রকল্পের ফলে সড়কের উপর থেকে সরানো হয় বিদ্যুতের খুঁটি ও তার। এতে বেড়ে যায় সড়কটির সৌন্দর্য।

সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক)-এর মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ৫ জানুয়ারি এই সড়কে তারের জঞ্জাল সরানোর কাজ পরিদর্শন করে গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠান। এরপর সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে ওই সড়কের ছবিটি। দেশজুড়েই প্রশংসিত হয় এই প্রকল্প। ৬ জানুয়ারি ফের নিজের কাউন্সিলরদের নিয়ে এই সড়ক পরিদর্শনে যান মেয়র। এ অবস্থায় সিলেট সিটি করপোরেশন এই প্রকল্পের কাজ করছে বলে বিভিন্ন মাধ্যমে উল্লেখ করা হয়। যদিও ৭ জানুয়ারি বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে আরেকটি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সিলেটে চলমান আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎলাইন রূপান্তর প্রকল্প সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কোন প্রকল্প নয়। সরকারের অর্থায়নে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

প্রশংসিত এই প্রকল্পের কৃতিত্ব নিয়ে দড়ি টানাটানির মধ্যে শুক্রবার এই প্রকল্পের আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সাংসদ ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তবে এ অনুষ্ঠানে সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন না। বিকেল সাড়ে ৩টায় দরগাহ গেইট এলাকায় এ প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়।

শুক্রবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, আওয়ামী লীগ নেতা মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, মাসুক উদ্দিন আহমদ, শফিকুর রহমান চৌধুরী, আসাদ উদ্দিন আহমদ, নাসির উদ্দিন খান, অধ্যাপক জাকির আহমদ প্রমুখ।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা যায়, প্রথম পর্যায়ে নগরীর দরগাহ গেইটের মেইন রোড থেকে দরগাহের ভেতর পর্যন্ত বৈদ্যুতিক তার মাটির নিচ দিয়ে নেয়া হয়েছে। সিলেট নগরীর প্রাণকেন্দ্র শাহজালাল (রহ.) মাজারের সামনের রাস্তার দুপাশের ওভারহেড বৈদ্যুতিক লাইনকে সম্পূর্ণভাবে ভূ-গর্ভস্থ লাইনে রূপান্তর করে সফলতার সাথে গত ৫ জানুয়ারি থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে। এতে একদিকে নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি পেয়েছে এবং নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের নির্ভরশীলতা ও নিরাপত্তা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ কাজে সিটি কর্পোরেশন সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করেছে।

এছাড়া এ প্রকল্পের আওতায় আম্বরখানা উপকেন্দ্র থেকে চৌহাট্টা হয়ে বন্দরবাজার পর্যন্ত ২টি এবং শেখঘাট থেকে সার্কিট হাউজ পর্যন্ত আরও একটি ১১ কেভি ফিডারকে সম্পূর্ণভাবে ভূ-গর্ভস্থ লাইনে রূপান্তরের কাজ চলছে। শীঘ্রই কাজগুলি সম্পন্ন হবে।

গত ৫ জানুয়ারি শাহজালাল (রহ.) মাজারের সামনের রাস্তার দুপাশের ওভারহেড বৈদ্যুতিক লাইনকে সম্পূর্ণভাবে ভূ-গর্ভস্থ লাইনে রূপান্তর করে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়েছিল।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares