এমসি কলেজের নতুন অধ্যক্ষ সালেহ, উপাধ্যক্ষ পান্না

প্রকাশিত: ১১:০৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯

এমসি কলেজের নতুন অধ্যক্ষ সালেহ, উপাধ্যক্ষ পান্না

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজের নতুন অধ্যক্ষের দায়িত্ব পেয়েছেন কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. সালেহ আহমদ। আর উপাধ্যক্ষ হয়েছেন ফেনী সরকারি জিয়া মহিলা কলেজের অধ্যাপক পান্না রানী রায়। বুধবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. শ্রীকান্ত কুমার চন্দ্র স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে নতুন অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষের নাম ঘোষনা করা হয়।

নতুন অধ্যাপক মো. সালেহ আহমদ বলেন, ‘আমি প্রায় ২ বছর এই কলেজের উপাধ্যক্ষ পদে আছি। আজ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে জারি করে আমাকে অধ্যক্ষ পদ দেওয়া হয়েছে। বর্তমান অধ্যক্ষের দায়িত্ব ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত আছে। আমি ৩১ ডিসেম্বরে আনুষ্ঠানিক ভাবে অধ্যক্ষের দায়িত্ব নিব।’

পাশাপাশি উপাধ্যক্ষ পদে কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক পান্না রানী রায়ও দায়িত্ব গ্রহণ করবেন বলেও জানান তিনি।

সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর থানার সৈয়দপুর গ্রামে ১৯৬৩ সালে জন্ম নেওয়া প্রফেসর মো. সালেহ আহমেদ, চতুর্দশ বিসিএস পরিক্ষায় সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে উত্তীর্ণ হন। পরে ময়মনসিংহ গফরগাঁও সরকারি কলেজে মনোবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক হিসেবে ১৯৯৩ সালে সরকারি চাকুরিতে যোগদান করেন। ১৯৯৪-২০০১ সালে এমসি কলেজে, সেখান থেকে ২০০১ সালে রাজশাহী সিটি সরকারি কলেজে, এবং পরবর্তীতে আবারও পদোন্নতি পেয়ে এমসি কলেজে মনোবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হয়ে যোগদান করেন।

পরবর্তীতে বিভিন্ন কলেজ ও সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করে ২০১৭ সালের অক্টোবরে সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন। সেখানে প্রায় ৬ মাস দায়িত্ব পালন শেষে ২০১৮ সালের ৭ এপ্রিল এমসি কলেজের উপাধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন।

পান্না রানী রায় সিলেট নগরীর লালদিঘীর পাড় এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম স্বর্গীয় রঙ্গলাল রায় ও মাতার নাম ছায়া রানী রায়। শিক্ষা জীবনের শুরু থেকেই পান্না রানী রায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর বহন করে এসেছেন। সিলেট সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৮০ সালে এসএসসি ও সিলেট সরকারি মহিলা কলেজ থেকে ১৯৮২ সালে এইচএসসি পাশ করেন।

তৎকালীন কুমিল্লা বোর্ডের অধীনে মানবিক শাখা থেকে সম্মিলিত মেধা তালিকায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেছিলেন। পরবর্তীতে প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজবিজ্ঞানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। ১৯৯২ সাল থেকে শিক্ষকতা পেশায় যুক্ত হন। প্রথমে ১৯৯২ সালে সিলেট সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষিকা হিসেবে যোগদান করেন।

পরবর্তীতে ১৯৯৩ সালে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে উত্তীর্ণ হয়ে অধ্যাপনায় নিয়োজিত হন। ১৯৯৩ সালের ২১ নভেম্বর প্রভাষক হিসেবে নওগাঁ সরকারি বিএমসি কলেজে যোগদান করেন। শিক্ষকতা জীবনে প্রভাষক হিসেবে নরসিংদী সরকারি কলেজ, সহকারি অধ্যাপক হিসেবে লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ এবং ব্রাহ্মনবাড়িয়া সরকারি কলেজে শিক্ষকতা করেন। বর্তমানে এমসি কলেজে সমাজবিজ্ঞান বিভাগে বিভাগীয় প্রধান হিসেবে কর্মরত আছেন।

শিক্ষকতার পাশাপাশি পান্না রানী রায় লেখালিখির সাথে দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত। তাঁর লেখা গল্প, কবিতা, প্রবন্ধ ও সমসাময়িক বিষয়াবলী সম্পর্কিত লেখা বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

December 2019
S S M T W T F
« Nov   Jan »
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares