জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেহাল অবস্থা: চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরা

প্রকাশিত: 10:42 PM, December 9, 2019

জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেহাল অবস্থা: চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরা

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেহাল অবস্থা। নতুন অ্যাম্বুলেন্স সেটিও বিকল। জেনারেটর আলো দেয়না। চিকিৎসক সঙ্কট। এছাড়া ল্যাব, ডেন্টাল, ষ্টোর কিপার, গাইনি চিকিৎসক, কেমিষ্ট, এনেসতেশিয়া, ওয়ার্ড বয়সহ নানা সঙ্কট বিরাজ করছে এ প্রতিষ্ঠানে। ফলে উপজেলার ৩ লাখ মানুষ বঞ্চিত হচ্ছেন সরকারি চিকিৎসা সেবা থেকে।

সরেজমিনে জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, ৩১ শয্যার হাসপাতালটিকে ১০ বছর পূর্বে ৫১ শয্যায় উন্নীত করার পর স্বাস্থ্য সেবার মান বৃদ্ধি করার কথা থাকলেও দিন দিন প্রতিষ্ঠানটি চিকিৎসা সেবার মান হারাচ্ছে। রোগীরা পাচ্ছেনা সঠিক চিকিৎসা সেবা। সরকারি চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে উপজেলার প্রায় ৩ লক্ষাধিক মানুষকে। এছাড়া পার্শ্ববর্তী গোয়াইনঘাট উপজেলার পূর্ব জাফলং, আলীরগাঁও ইউনিয়ন এবং কানাইঘাট উপজেলার বড় চতুল ইউনিয়নের চিকিৎসাসেবা নিতে আসা রোগীদেরও বঞ্চিত হতে হচ্ছে চিকিৎসা সেবা থেকে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ৩১ শয্যা থেকে ৫১ শয্যায় উন্নীত করা হলেও চলছে ৩১ শয্যার ষ্টাফ দিয়ে। তা-ও আবার পরিপূর্ণতা পায়নি। ৩১ শয্যার হাসপাতালে ১০২ জন ষ্টাফের বিপরিতে আছেন ৩৯ জন। তিন উপজেলার মধ্যবর্তী জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হওয়ার কারনে এবং এশিয়ান হাইওয়ে রোড থাকার কারনে প্রায়ই সড়ক দূর্ঘটনা ঘটে। একারনে হাসপাতালটি জনগুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠে।

যে সকল পদ শুন্য রয়েছে সেগুলো হল জুনিয়র কনসালটেন্ট অবস্ গাইনী, জনিয়র কনসালটেন্ট এনেসতেশিয়া, ডেন্টাল সার্জন, দুজন মেডিকেল অফিসার, মেডিকেল অফিসার (হোমিওপ্যাথিক), সহকারী সার্জন (নবসৃষ্ট) ৫টি পদের ২টি শুন্য, চিকিৎসক সহকারী ২টি পদের ১টি শুন্য, চিকিৎসক সহকারী (নবসৃষ্ট) ৫টি পদ শুন্য, ফার্মাসিষ্ট ২টি পদ শুন্য, মেডিকেল টেকনোলজি (ল্যাব) ২টি পদ শুন্য, মেডিকেল টেকলোলজি (রেডিওগ্রাফি) ১টি পদ শুন্য, মেডিকেল টেকনোলজি (ডেন্টাল) ১টি পদ শুন্য, সহকারি নার্স ১টি শুন্য, ক্যাশিয়ার ১টি পদ শুন্য, স্টোর কিপার ১টি পদ শুন্য, অফিস সহকারী ৩টি পদে ১টি শুন্য, স্বাস্থ্য সহকারী ২০টি পদে ৭টি শুন্য, জুনিয়র মেকানিক ১টি পদ শুন্য, অফিস সহায়ক ৪টি পদের ৩টি শুন্য, ওয়ার্ড বয় ৩টি পদে ৩জন থাকলেও ২জন ডেপুটেশনের অন্যত্র থাকায় ২টি পদ শুন্য, আয়া ২টি পদের ১টি শুন্য, নিরাপত্তা প্রহরী ২টি পদের ১টি শুন্য, বাবুর্চী ২টি পদের ১টি শুন্য, গার্ডেনার ১টি পদ শুন্য, পরিচ্ছন্নতা কর্মী ৫ টি পদের ১টি শুন্য রয়েছে।

উন্নত মানের সার্জারী অপারেশন থিয়েটার, উন্নত মানের এক্সরে, ইসিজি, আরবিএ মেশিন যন্ত্রপাতি থাকার পরও চিকিৎসক ও ষ্টাফ সংকটের কারনে সেগুলো না হওয়ায় এলকার লোকদের বাইওে থেকে করাতে হচ্ছে। অপরদিকে জৈন্তাপুর উপজেলা নতুন এ্যাম্বুলেন্স গত ১০ দিন ধরে যান্ত্রিক সমস্যার কারনে বিকল রয়েছে। আধুনিক জেনারেটর থাকার পরও দীর্ঘ ২ বৎসর ধরেই বিকল, ঔষধি বাগান থাকলেও পরির্চযার অভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

অভিযোগ উঠেছে এম.এল.এস সুমনের নামে বাসা বরাদ্ধ নিয়ে অবৈধভাবে ব্যবহার করছেন ছত্তার মিয়া, শহিদুল ইসলাম মোল্লা ও ইসমাইল হোসেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আমিনুল হক সরকার বিধি মোতাবেক ১ টি কোয়াটার ব্যবহার করার কথা থাকলেও তিনি নিজেই প্রথম তলায় চেম্বার এবং দ্বিতীয় তলার কোয়ার্টারে হিসাবে ব্যবহার করছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আমিনুল হক সরকার জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জেনারেটর ২ বছর ধরে নষ্ট, এছাড়া এক্সরে মেশিন পুরাতন হওয়ায় কাজের অনুপযোগী, ইসিজি মেশিন এখনও ইনষ্টল করা হয়নি। এ্যাম্বুলেন্স দ্রুত সময়ের মধ্যে সচল করা হবে। অফিসার কোয়ার্টাস খালি পড়ে থাকার কারনে আপাতত আমি ব্যবহার করছি, এম.এল.এস সুমনের নামে বাসা বরাদ্ধ নিয়ে অন্যরা থাকছে বিষয়টি জানা নেই খোঁজ নিয়ে দেখব বলে জানান। শুন্য পদের ব্যপারে তিনি বলেন, বিষয়টি উর্দ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি।

জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল আহমদ বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন ভবনটি রোগীদের সেবায় কাজে লাগছে না, তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা এবং ষ্টাফ সংকট পূরণসহ যাবতীয় সমস্যা উত্তরনে সংশ্লিষ্ট উর্ধবতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আর্কষন করছি।

তিনি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মর্সস্থান মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রীর কাছে সমস্যা উত্তরনের বিষয়টি অবহিত করা হবে বলে তিনি জানান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

December 2019
S S M T W T F
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  

সর্বশেষ খবর

………………………..