ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিশ্ব ফিজিওথেরাপি দিবস পালন

প্রকাশিত: ৩:১৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৯

ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিশ্ব ফিজিওথেরাপি দিবস পালন

Sharing is caring!

১৯৫১ সালে প্রথম বিশ্বব্যাপী ফিজিওথেরাপি দিবস উদযাপন শুরু হয়। চিকিৎসা ব্যবস্থায় ফিজিওথেরাপি’র গুরুত্ব সাধারণ মানুষের মাঝে পৌঁছানোর লক্ষ্যে নানা কর্মসুচির মাধ্যমে বিশ্ব ফিজিওথেরাপি দিবস পালন করেছে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বাংলাদেশ সরকারী চাকুরীজবি ফিজিওথেরাপি এসোসিয়েশন ( বিজিইপি)।

এ বছরে দিবসটির দু’টি প্রতিপাদ্য বিষয় হলো “ব্যাথা নিরাময়ে ঔষধ নয়, ফিজিওথেরাপির বিকল্প নাই” এবং দীর্ঘমেয়াদী ব্যাথা নিরাময়ে ফিজিওথেরাপি কার্যকারী চিকিৎসা” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে রোববার সকাল সকাল ১০ টায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রবেশ মুখ থেকে বর্ণঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি হাসপাতাল চত্তর প্রদক্ষিণ করে হাসপাতালের গোলচত্তরে এসে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার মাধ্যমে শেষ হয়।

বাংলাদেশ সরকারী চাকুরীজীবি ফিজিওথেরাপি এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগীয় কমিটির সভাপতি এবং ওসমানী হাসপাতালের চীফ ফিজিওথেরাপিষ্ট মোঃ জহিরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ও সিনিয়র মেডিকেল ফিজিওথেরাপিষ্ট আনন্দ বনিক এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থি ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও ওসমানী হাসপাতালের সিনিয়র মেডিকেল ফিজিওথেরাপিষ্ট মোঃ আলমগীর হোসেন। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট ও ছাত্রছাত্রী বৃন্দ।

দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে বক্তারা বলেন, চিকিৎসা বিজ্ঞানের যে বিষয়টি আবিষ্কার করে মানুষ পঙ্গুত্বকে জয় করেছে, বাত-ব্যথা মুক্ত সুস্থ স্বাভাবিক জীবন কাটাচ্ছে সে শাখাটির নাম ফিজিওথেরাপি। এটি ওষুধ ছাড়া বিভিন্ন শারীরিক ব্যায়াম ও মুভমেন্টের মাধ্যমে পরিচালিত একটি বিশেষ চিকিৎসা পদ্ধতি। উন্নত বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও এখন ফিজিওথেরাপি বাত ব্যথা প্যারালাইসিস ও স্পোর্টস ইনজুরির চিকিৎসায় অন্যতম চিকিৎসা পদ্ধতি হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে।

বক্তারা আরা বলেন, সর্বকালের শ্রেষ্ট বাঙালী, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রত্যক্ষ উদ্যেগে যুদ্ধহত মুক্তিযোদ্ধাদের পূর্ণবাসনের লক্ষে ১৯৭২ সালে তৎকালীন রিহ্যাবিলিটেশন ইন্সটিটিউট ও হাসপাতল( পঙ্গু হাসপাতাল)এ ¯œাতক পর্যায় ফিজিওথেরাপিশিক্ষা ও চিকিৎসা চালুকরা হয়। বাংলাদেশে ১৯৯৬ সাল থেকে নিয়মিত দিবসটি পালন করা হচ্ছে, এরই ধারা বাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরাসরি দিক নির্দেশনায় শাররীক প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর জীবন মান উন্নয়নে ও বাত ব্যাথা আঘাত জনিত ব্যাথা, বয়স জনিক সমস্যা প্যারালাইসিস রোগের চিকিৎসায় ফিজিওথেরাপি একটি স্বীকৃতি, কার্যকরী ও পাশর্^প্রতিক্রিয়াবিহীন চিকিৎসা পদ¦তি। সরকারের সহয়োগিতার কারনে সরকারী বেসরকারী হাসপাতাল,সমাজকল্যাণ মন্ত্রালয় পরিচালিত সেবা সাহায্য কেন্দ্রে সামর্থ ও অসামর্থবান সকলেই অত্যান্ত সহজে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা নিতে পারছে।

দিনের অন্যান্য কর্মসুচির মধ্যে ছিল সকালে হাসপাতালের পরিচালকের সাথে সংগঠনের নেতৃবৃন্দর সৌজন্য সাক্ষাত, কর্তব্যরত চিকিৎসকদের সাথে সাক্ষাত ও ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান এবং অন্যান্য দিনের তুলনায় রোগিদের আরো বেসি“ ফ্রি”সেবা প্রদান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

September 2019
S S M T W T F
« Aug   Oct »
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares