প্রচ্ছদ

সিলেট উন্নয়নের রূপকার সাইফুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৩:০০

স্টাফ রিপোর্টার ::

Sharing is caring!

সিলেট উন্নয়নের রূপকার সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। উন্নয়ন কর্মকান্ডের জন্য মৃত্যুর দশ বছর পরও আলোচনায় রয়েছেন বর্ষীয়ান এই রাজনৈতিক ব্যক্তি। বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্যের দশম মৃত্যুবার্ষিকী ৫ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) বিকেলে তারই প্রতিষ্ঠিত কবি নজরুল ইসলাম অডিটোরিয়ামে ‘মরহুম এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত তার জীবন ও কর্ম বিষয়ক আলোচনা সভা হয়।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট ড. আসিফ নজরুল। ‘মরহুম এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের আহবায়ক সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে মূখ্য আলোচকের বক্তব্যে ড. আসিফ নজরুল বলেন, তরুণ বয়সে সাইফুর রহমান ইংল্যান্ডে পড়ালেখা করেন। তখনকার সময় সেভাবে কেউ বিদেশে পড়ার সুযোগ পেতেন না। শহীদ জিয়াউর রহমানের ডাকে তিনি রাজনীতি আসেন। বিএনপি সরকারের সফল অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন বারবার।

তিনিই প্রথম বাংলাদেশে ভ্যাট চালু করেন। তার চালু করা ভ্যাটে আজ দেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক অবদান রাখছে। তিনি ভাষাসৈনিক ছিলেন। কয়েকবার জেলেও গেছেন। দেশের জন্য অবিস্মরণীয় ভূমিকা রাখার পরও আজ যে অডিটোরিয়ামে প্রোগ্রাম হচ্ছে সেখান থেকে সাইফুর রাহমানের নাম মুছে দেয়া হয়েছে। অথচ তিনি দক্ষিণ সুরমার কদমতলীতে হুমায়ূন রশীদ চত্বর নামকরণ করেছেন আওমী লীগের বর্ষীয়ান নেতার নামে। সাইফুর রহমানের যোগ্য উত্তরসূরি আরিফুল হক উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, সিলেটের উন্নয়নের রূপকার এম সাইফুর রহমানের পথ অনুসরণ করে এগিয়ে যাচ্ছেন সিসিকের জননন্দিত মেয়র। বিএনপি চেয়ারপার্সন উপদেষ্টা এম এ হক আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, এম সাইফুর রহমানের হাত ধরে আমি রাজনীতিতে পদার্পণ করি।

বেগম খালেদা জিয়া সিলেটে এসে সিলেটকে বিভাগ ঘোষণা করেছিলেন। বিভাগ ঘোষনার পেছনে অবদান ছিলো প্রয়াত অর্থমন্ত্রীর। তার কল্যাণে সিলেটের রাস্তাঘাট অনেক উন্নয়ন হয়েছে। যা আজও জনসাধারণের মুখেমুখে শোনা যায়। মৃত্যুবার্ষিকীতে আমি তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। সভাপতির বক্তব্যে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, সাইফুর রহমানের মৃত্যুর আগের দিন শুক্রবার ছিলো। সে দিন তার তৈরি সার্কিট হাউজে এসে তিনি জায়গা পান নি। পরে বন্দরবাজার জামে মদজিদে নামাজ পড়ে মুসল্লিদের স্বাক্ষাতের সময় ভুলত্রুটির জন্য মাপ চান। মসজিদের সংস্কার কাজের জন্য ৫’শত বস্তা সিমেন্ট দান করেন।

পরে তিনি হযরত শাহজালাল (রহ:) মাজার জিয়ারতে যান। সফরে সবাইকে দেখলেও কামরানকে দেখতে না পেয়ে তখন ফোন দিয়ে কামরানের সাথে কথা বলেন বলে বক্তব্যে উল্লেখ করেন মেয়র আরিফ। পরের দিন টিভি স্কলে দেখেন সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন সিলেটের উন্নয়নের রূপকারের মৃত্যুর খবর। আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী ও সাইফুর ভক্তরা। অনুষ্ঠান শেষে সাইফুর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট মাওলানা আব্দুর রকিব।

  •  
  •  
  •  

আর্কাইভ

September 2019
S S M T W T F
« Aug    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930  
shares