ছেলেধরা সন্দেহে ৮ নারীকে পুলিশে সোপর্দ

প্রকাশিত: 6:36 PM, July 31, 2019

ছেলেধরা সন্দেহে ৮ নারীকে পুলিশে সোপর্দ

গাজীপুরের কালীগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে ৮ নারীকে পুলিশে কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাদের আটক করে পুলিশে দেয় স্থানীয়রা।

আটকরা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার দরমন্ডল গ্রামের সেন্টু মিয়ার স্ত্রী পিংকি বেগম (২২), একই এলাকার বদরুল মিয়ার স্ত্রী মাফিয়া বেগম (২০), সোলমানের স্ত্রী খাইরুন (২৮), গোলাপ মিয়ার স্ত্রী হাসিনা বেগম (২০), জামান মিয়ার স্ত্রী খাদিজা (১৮), জালাল উদ্দিনের স্ত্রী পারুল বেগম (৩০), মন্নান মিয়ার স্ত্রী পারভীন বেগম (৩৭) ও কামরুল মিয়ার স্ত্রী অঞ্জনা বেগম (২৫)।

এদের মধ্যে পিংকির কোলে সাকিব নামের ৯ মাসের, খাইরুনের কোলে দেড় বছরের ও পারুলের কোলে ৯ মাসের ৩টি শিশু ছিল। ওই নারীদের দাবি ওই শিশুরা তাদের সন্তান।

জানা গেছে, বুধবার দুপুর ১২টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে ৪ নারীকে এবং অপর ৪ নারীকে হাসপাতালের বহির্বিভাগে ঘোরাফেরা করতে দেখে সন্দেহ হলে স্থানীয়রা তাদের আটক করে ইউএনও অফিসে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাদের কালীগঞ্জ থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুবকর মিয়া বলেন, ইউএনও অফিস থেকে ফোন করে থানা পুলিশের কাছে ৮ নারীকে সোপর্দ করা হয়েছে। আমরা সংশ্লিষ্ট থানায় খোঁজ-খবর নিচ্ছি। তাদের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের অপরাধের প্রমাণ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। না পেলে ছেড়ে দেয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..