তামাবিল স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানি বন্ধ

প্রকাশিত: 5:41 PM, July 27, 2019

তামাবিল স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানি বন্ধ

চট্টগ্রামের পাথর ব্যবসায়ীদের থাবায় সিলেট পাথর ব্যবসায়ীরা ধ্বংসের মূখে স্খানীয় ব্যবসায়ী সূত্রে জানায়ায়- গত ২৬ জুলাই হতে সিলেটের তামাবিল স্থল বন্দর দিয়ে সকল প্রকার পাথর অামদানী বন্দ রয়েছে৷ কারন অনুসন্ধানে জানাযায়, কিছু সংখ্যাক ব্যবসায়ী চট্টগ্রাম ও সিলোটে উভয় এলাকায় পাথর ব্যবসা পরিচালনা করছেন৷ সম্প্রতি তাদের অামদামী করা এবং পাথরের মজুদ সিলেট ও চট্টগ্রামে বেশি হওয়ায় কৌশল অবলম্বন করে উচ্চ মূল্য ও অধিক মুনাফা অর্জনের জন্য কৌশলে তামাবিল স্থল বন্দরের পাথর অাদমানী বন্দ করেছেন৷ এদিকে তামাবিলের প্রভাবশালী চক্রটি চট্টগ্রামের ব্যবসায় জড়িত থাকায় সহজে সিলেটের পাথর ব্যবসা কেন্দ্র ভোলাগঞ্জ, জাফলং এবং তামাবিল স্থলবন্দরের পাথর ব্যবসাগ্রাস করে ফেলেছে৷ এই চক্রটি চায় সিলেটের পাথর ব্যবসা ধ্বংস করেতে তামাবিল বন্দরের ব্যবসায়ীদের কয়েকটি গ্রুপে ভাগ করে ধন্দ সৃষ্টি করে তামাবিল বন্দর দিয়ে পাথর বাবসা স্থায়ী বন্দ করতে চায়৷ যার ফলে প্রাথমিক ভাবে কোন প্রকার কারন ছাড়া হঠাৎ করে পাথর অামদানী বন্দ করে দেয় তারা৷ এদিকে পাথর অামদানী বন্দ করায় সাধারন পাথর বাবসায়ীরা জানায় মূলত চট্টগ্রাম বন্দরের ও তামাবিলের কিছু সংখ্যাক ব্যবসায়ীরা তাদের মুনাফার জন্য অামাদের পেটে লাথি দিচ্ছে এবং এই বন্দরে পাথর অামদানীতে স্থায়ী বন্দের পদক্ষেপ গ্রহন করছে৷ অামরা তাদের জিম্মী দশা হতে মুক্তি চাই৷ অপরদিকে ভারত সরকারের কাষ্টম বিভাগ সাথে যোগাযোগ করলে পাথর রপ্তানীতে ভারতের কোন সমস্যা নেই, বাংলাদেশ ব্যবসায়ীরা হঠাৎ করে পাথর অামদানী বন্দ করেছে বলে কাষ্টম জানান৷ এবিয়ে জানতে ভোলাগঞ্জ ষ্টোন ক্রাশার মালিক সমিতির সভাপতি অাব্দুন নুর জানান- বিদেশী অামদানীকৃত পাথর অানার ফলে অামাদের দেশের মুদ্রা বাহিরে চলে যাচ্ছে ফলে অামাদের পাথর সমৃদ্ধ এলাকা সিলেট ধ্বংসের মুখে পড়বে৷ এবিষয়ে জানেত ডিসি গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান- এবিষয়ে অামাদের কিছু জানা নেই৷ অামরা বিশেষ কোন ইনফরমেশন থাকলে অামরা অভিযান করি৷ কি বারনে পাথর অাসছে না অামি সটিক বলতে পারব না৷ এবিষয়টি কাষ্টম কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীরা জানেন৷ তাদের অাভ্যন্তরিন কিছু হলে অামাদের দেখার কিছু নেই৷ এবিষয়ে কাষ্টম সুপার অালমগীর প্রধান বলেন- পাথর গতকাল হতে অাসছে না এটা সিএন্ডএফ এজেন্ট ও পাথর অামদানী কারকের মধ্যে কিংবা ভারতের সাথে কোন প্রকার স্যমস্যা থাকলে এটি তাদের বিষয়৷ অামরা সরকারী সেবা দিতে প্রস্তুন রয়েছি৷ পাথর অামদানী অামাদের কোন সমস্যা নেই৷ এবিষয়ে জানতে তামাবিল পোর্ট ইনচার্জ জানান- পোর্টের কোন সমস্যা নেই৷ হয়ত তাদের অভ্যন্তরিন কোন সমস্যার করনে পাথর অামদানি বন্দ করা হয়েছে৷

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..