হানিফের বিরুদ্ধে যাত্রী হয়রানীর অভিযোগ

প্রকাশিত: ৫:৩২ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০১৯

হানিফের বিরুদ্ধে যাত্রী হয়রানীর অভিযোগ

Sharing is caring!

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে হানিফ এন্টারপ্রাইজ এর বিরুদ্ধে যাত্রী হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে। টাইম এর কোন তোয়াক্কা করে না। ঘন্টা-দুই ঘন্টা ব্যবধানে গাড়ি ছাড়ে তারা। ঢাকা সায়দাবাদ হানিফের ৫নং কাউন্টারে স্টাফদের কাছে যাত্রীরা প্রায়ই হয়রানীর শিকার হন। কিন্তু কোন যাত্রী এর প্রতিবাদ করলে মারধর শুরু করেন স্টাফরা। তাদের কাছ থেকে টিকিট কেনার পর যাত্রীরা জিম্মি হয়ে পড়েন। এমন কি গাড়ী যেখানে সেখানে যাত্রা বিরতি পালন করে। যার ফলে যাত্রীরা অতঙ্কের মধ্যে থাকেন। তাদের এসকল কর্মকান্ড দেখার কেউ নেই।

জানাগেছে, বৃহস্পতিবার সিলেটের ডাকের গোয়াইনঘাট উপজেলা প্রতিনিধি ও গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাব এর সাবেক সভাপতি সাংবাদিক মনজুর আহমদ সায়দাবাদ হানিফের ফকিরাপুল কাউন্ডার থেকে ২.১৫মিঃ এর গাড়ীর টিকিট কাটেন।

সায়দাবাদ আসার পর তিনটা পেরিয়ে গেলোও কোন গাড়ী ছাড়েনি কর্তৃপক্ষ। পরবর্তীতে সাংবাদিক মনজুর সায়দাবাদ হানিফের ৫নং কাউন্টারে স্টাফ মামুনের কাছে জানতে চাইলে সে কোন পাত্তা না দিয়ে বলে গাড়ী যখন আসবে তখন যাবে আমাদের কিছু করার নেই। এমনি ওই সাংবাদিকের সাথে খারাপ ব্যবহার করে মামুন।

পরে তিনি তাদের সাথে আর কোন কথা না বাড়িয়ে নিরব থাকেন এবং তিনি সাথে সাথে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কর্তৃপক্ষকে বিষটি অবগত কারেন। সর্বশেষ সাংবাদিক মনজুর আহমদ ৪টার গাড়ী দিয়ে সিলেটের উদ্দোশ্যে যাত্রা করেন।

এব্যাপারে সায়দাবাদ হানিফ কাউন্টারের ০১৭১৩৪০২৬৭৩ নম্বারে কল দিলে তারা বলেন আমাদের এইটা এসি নন এসির খবর আমরা জানতে পারি না বা এবিষয়ে কোন কথা বলতে পারবো না। সিলেটের হানিফ কাউন্টারের ০১৭১১৯২২৪১৩ নম্বারে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তারা কোন কল রিসিভ করেন নি।

এব্যাপাারে হানিফ এন্টারপ্রাইজের জেনারেল ম্যানাজারের সাথে কথা হলে তিনি বলেন আমি বিষয়টি শুনেছি। তদন্ত সাপেক্ষ ব্যবস্থা নেওয়া হবে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares