বিশ্বনাথের নিখোঁজ যুবতি প্রেমিক’সহ ফেঞ্চুগঞ্জ থেকে উদ্ধার: অতঃপর বিয়ে

প্রকাশিত: ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৪, ২০১৯

বিশ্বনাথের নিখোঁজ যুবতি প্রেমিক’সহ ফেঞ্চুগঞ্জ থেকে উদ্ধার: অতঃপর বিয়ে

Sharing is caring!

সিলেটের বিশ্বনাথ থেকে নিখোঁজের প্রায় দুই মাস পর যুবতি হেলিমা বেগম (২৫)’কে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধারের পর হেলিমা বেগম ও তার প্রেমিক নিজাম উদ্দিন আলিম (২৭)’কে রবিবার (২১ জুলাই) দিবাগত রাতে বিশ্বনাথ থানায় নিয়ে আসা হয়। অতঃপর হেলিমা বেগম ও নিজাম উদ্দিন আলিম বিবাহ উপযুক্ত হওয়ায় উভয় পরিবারের সম্মতিতে সোমবার (২২ জুলাই) বিকেলে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।
থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ছাতক উপজেলার সুতারখালী গ্রামের জুনাব আলীর ছেলে নিজাম উদ্দিন আলিম দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বনাথ উপজেলার সিংগেরকাছ বাজারস্থ একটি ফার্নিচারের দোকানে কাঠমিস্ত্রির কাজ করে আসছে। সে সিংগেরকাছ এলাকার নোয়াগাঁও (পূর্বপাড়া) গ্রামের আনিছ আলীর বাড়িতে আসা যাওয়া করার সুবাদে পরিচয় হয় তার (আনিছ আলীর) মেয়ে হেলিমা বেগমের সাথে। এরপর হেলিমা ও নিজামের মধ্যে গড়ে উঠে প্রেমের সম্পর্ক। একপর্যায়ে প্রায় ২মাস পূর্বে প্রেমিক নিজামের হাত ধরে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান হেলিমা। এঘটনায় হেলিমার বড় বোন বিশ্বনাথ থানায় সাধারণ ডায়েরী করলে রবিবার রাতে বিশ্বনাথ থানার এসআই মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ধনারাম গ্রাম (নিজামের বন্ধুর আত্মীয়ের বাড়ি) থেকে হেলিমা বেগমকে উদ্ধার করে এবং ওই রাতেই প্রেমিক নিজাম সহ হেলিমাকে বিশ্বনাথ থানায় নিয়ে আসা হয়। এরপর তারা দু’জনই বিবাহ উপযুক্ত হওয়ায় তাদের নিজ নিজ পরিবারের সম্মতিতে সোমবার বিকেল ৪টায় তিন লাখ টাকা দেনমোহর নির্ধারণ করে এই প্রেমিক জুটির বিয়ে সম্পন্ন হয়।
বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, প্রেমিক জুটিকে উদ্ধারের পর তাদের উভয়ের পরিবারের সদস্যদের সম্মতিতে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares