বন্যায় গোয়াইনঘাটে সড়কের বেহাল দশা

প্রকাশিত: ৪:৫৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০১৯

বন্যায় গোয়াইনঘাটে সড়কের বেহাল দশা

Sharing is caring!

টানা দুই সপ্তাহ ধরে ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলে সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় বানের পানি বৃদ্ধি হয়ে উপজেলার জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কের পাশাপাশি গ্রামীণ সড়ক গুলির উপর প্রায় ৬-৭ দিন স্থায়ী হয়ে বানের পানি প্রবাহিত হয়। উপজেলার পাকা ১৬৯ কিলোমিটার সড়কের মধ্যে ৯০ কিলোমিটার সড়ক পানির নিচে ছিল। বন্যায় তলিয়ে যাওয়া সড়কের মধ্যে সারীঘাট-গোয়াইনঘাট।

সালুটিকর -গোয়াইনঘাট। হাতির পাড়া – ফতেহপুরসহ উপজেলার সিংহভাগ সড়ক বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে তলিয়ে গিয়েছিল। এদিকে ভারতের মেঘালয়ে ভারি বর্ষণ ও বৃষ্টি পাতের কারণে বাংলাদেশ অভ্যন্তরের পিয়াইন ও সারী অববাহিকায় পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার কারণেই উপজেলার ৮০ ভাগ গ্রাম পানির নিচে ছিল। পিয়াইন ও সারী নদী দিয়ে আসা পাহাড়ি ঢলের কারণে উপজেলার পূর্ব জাফলং, আলীরগাঁও, রুস্তমপুর, ডৌবাড়ী, লেঙ্গুড়া, তোয়াকুল ও নন্দীরগাঁও ইউনিয়নের প্রায় শতভাগ গ্রামের রাস্তাঘাট ও বাড়িঘর পানিতে প্লাবিত হয়ে উপজেলা সদরের সাথে ৭-৮ দিন সড়ক পথে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন ছিল।

এছাড়াও ডৌবাড়ী হাকুর বাজার কাপনা নদীর উপর নির্মিত হাকুর বাজার ব্রীজের সাইট বেঙে যানবাহন ও মানুষের চলাচল বন্ধ রয়েছে। অপর দিকে সদ্য মেরামত ও পূর্ণবাসনকৃত সালুটিকর – গোয়াইনঘাট সড়ক। গোয়াইনঘাট – সারীঘাট সড়ক। হাতির পড়া – হাকুর বাজার ভায়া ফতেপুর সড়ক। গোয়াইনঘাট – রাধানগর সড়ক। গোয়াইনঘাট – আহারকান্দি সড়ক। এবং খাগাইল বাজার – তোয়াকুল সড়কের দুই তৃতীয়াংশ সড়কের উপর ২-৫ ফুট পানি ৬-৮ দিন স্থায়ী হওয়ায় চলতি বন্যায় গোয়াইনঘাট উপজেলার ছোট বড় প্রায় ৯০ কিলোমিটার সড়কে ব্যায়াপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে।

চলতি বন্যায় শুধু মাত্র এলজিইডির ৯০ কিলোমিটার সড়ক বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় প্রায় ৫০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতির আশংকা করছেন গোয়াইনঘাট উপজেলা প্রকৌশলী রাসেন্দ্র চন্দ্র দেব। তিনি বলেন বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়া প্রায় ৯০ কিলোমিটার সড়কই সদ্য মেরামত ও পূর্ণবাসনকৃত।

এ বিষয়ে গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিত কুমার পাল জানান চলতি বন্যায় সিলেটের সীমান্তবর্তী উপজেলা গোয়াইনঘাটের সর্বাধিক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে পাকা সড়ক গুলির। বন্যার পানির নিচে প্রায় ৭-৮ দিন উপজেলার ৯০ কিলোমিটার সড়ক ছিল। সড়কের উপর দিয়ে ৪-৫ ফুট পানি প্রবল গ্রোতে প্রবাহিত হয়ে সর্বাধিক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে সালুটিকর – গোয়াইনঘাটকের।

এছাড়া গোয়াইনঘাট – সারিঘাট। হাতির পাড়া হাকুর বাজার ভায়া ফতেহপুর সড়কসহ গোয়াইনঘাট – রাধানগর। গোয়াইনঘাট – মাতুরতল। বঙ্গবীর – হাদারপার সড়কের পাশাপাশি গ্রামীণ সড়ক গুলির ও ব্যায়াপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে। বিশেষ করে সালুটিকর – গোয়াইনঘাট সড়কের বিভিন্ন অংশে বেশকটি গভীর গর্ত সৃষ্টির কারণে যান চলাচলে সমস্যা হচ্ছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares