ছাতকের গোবিন্দগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

প্রকাশিত: ৯:৫৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ৫, ২০১৯

ছাতকের গোবিন্দগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

ছাতকের গোবিন্দগঞ্জ আব্দুল হক স্মৃতি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির পদ ব্যবহার করা নিয়ে কলেজ ছাত্রলীগের দু’গ্র“পের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে কলেজ সংলগ্ন গোবিন্দগঞ্জ ট্রাফিক পয়েন্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়- বৃহস্পতিবার কলেজে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠান চলছিল। অনুষ্ঠানে সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক মানব সম্পদ উন্নয়ন সম্পাদক আবু জাহিদ মো. আব্দুল গফ্ফার অনুসারীরা উপস্থিত ছিলেন। গফফার গ্র“পের নেতাকর্মীরা বার বার স্লোগান দিয়ে অনুষ্ঠানে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করলে ওই সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছাতক উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুর আলম ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক জাহিদ হাসান ডালিমের অনুসারী নেতাকর্মীরা স্লোগান না দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানান। তখন গফফার গ্র“পের নেতাকর্মীরা উস্কানী দিয়ে আবারও স্লোগান দিলে মঞ্জুর ও ডালিম গ্র“পের নেতাকর্মীদের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে গফফার গ্র“পের নেতাকর্মীদের কলেজে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়।

তখন কলেজে আসেন তাজম্মুল হক রিপন। তিনি নিজেকে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে দাবি করলেও দীর্ঘ ৫ বছর ধরে কলেজে অনুপস্থিত থাকায় তাকে কলেজ ছাত্রলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা সভাপতি মানতে পারেননি। তাই তাকে দেখা মাত্র ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তার উপরও হামলা চালায়।
পরে দু’পক্ষের নেতাকর্মীরা গোবিন্দগঞ্জ মহাসড়কে এসে মুখোমুখি সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। উক্ত ঘটনায় প্রায় ১৫ জন আহত হন।

সংঘর্ষে আহত তাজাম্মুল হক রিপন,মইনুল ইসলাম কৈতক হাসপাতালে ও অন্য আহতদের স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

প্রায় আধঘন্টা ছাতক-সিলেট ও ছাতক-সুনামগঞ্জ সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। যার ফলে সড়কে ৩দিকে আটকা পড়ে শত শত যাত্রী ও মালবাহী যানবাহন। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে।

ক্রাইমসিলেট/আবুল

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..