রিফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দেশত্যাগ ঠেকাতে রেড অ্যালার্ট

প্রকাশিত: ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০১৯

রিফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দেশত্যাগ ঠেকাতে রেড অ্যালার্ট

বরগুনা শহরের কলেজ রোড এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িতরা যাতে দেশ থেকে পালাতে না পারে, সে জন্য সব বিমানবন্দর, স্থলবন্দর ও নৌবন্দরে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৮ জুন) পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা এ তথ্য জানান।

এআইজি বলেন, রিফাত হত্যার ঘটনাটি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সর্বোচ্চ গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে। পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে জেলা পুলিশের পাশাপাশি পিবিআই, সিআইডি, র‌্যাব ও ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিট কাজ করছে। আশা করছি, সব আসামিকে শিগগিরই আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে। অভিযুক্তদের বিষয়ে কোনো তথ্য থাকলে পুলিশকে জানাতে সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে পুলিশ সদর দফতর।

গ্রেফতার ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে জানিয়ে সোহেল রানা বলেন, খুনের ঘটনায় এ পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। বাকিদের গ্রেফতারে সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

বরগুনার নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের দ্রুত বিচারের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলার ১২ আসামীর মধ্যে এখন পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে মামলার প্রধান আসামি নয়ন এবং রিফাত ফরাজী এখনো পলাতক রয়েছেন।

নিহত রিফাত শরীফের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলার ৬নং বুড়িরচর ইউনিয়নের বড় লবণগোলা গ্রামে। তার বাবার নাম আ. হালিম দুলাল শরীফ। মা-বাবার একমাত্র সন্তান ছিলেন রিফাত।

উল্লেখ্য, বুধবার (২৬ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। গুরুতর আহত রিফাতকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..