কোম্পানীগঞ্জ ধলাই নদীতে বেপরোয়া চাঁদাবাজির অভিযোগ

প্রকাশিত: ৬:০২ অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০১৯

কোম্পানীগঞ্জ ধলাই নদীতে বেপরোয়া চাঁদাবাজির অভিযোগ

কোম্পানীগঞ্জ পাথর উত্তোলন ও বহনকারী শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন পক্ষ থেকে গতকাল ২৫শে জুন মঙ্গলবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে স্মারকলিপিতে প্রদান করা হয়।

স্মারক লিপিতে উলে­খ্য করা হয় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পাথর উত্তোলন ও বহনকারী শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন রেজি নং ২২৬৩ শ্রম আইনের নীতিমালা অনুযায়ী সংগঠটি পরিচালিত হয়। শ্রমিকরা কোম্পানীগঞ্জের পাথর কোয়ারীতে বালু পাথর উত্তোলন ও বহন করতে গিয়ে ইদানিং চাঁদাবাজদের হাতে প্রতিদিন লাঞ্চিত হচ্ছেন। সম্পন্ন বে-আইনিভাবে অতিরিক্ত টেক্স দিতে শ্রমিকদের বাধ্য করা হচ্ছে।

এতে শ্রমিকরা সর্বশান্ত হয়ে যাচ্ছে। তাই আমরা শ্রমিক সংগঠনের নেত্রবৃন্দ এসকল চাঁদাবাজ ও অতিরিক্ত টেক্সদারীর কাছ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য প্রতিবাদ জানিয়ে আসছি। কিন্ত এলাকার চাঁদাবাজরা ওপেন ধলাই নদীতে চাঁদাবাজি করছে এবং শ্রমিকদেরকে প্রতিদিন মারধর করে জোরপূর্বক টাকা আদায় করে নিচ্ছে। ভিবিন্ন টেক্সের নামে চাঁদাবাজরা শ্রমিকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করছে।

এ ব্যাপারে প্রশাসনের উর্দ্ধতন কতৃপক্ষের চাঁদাবাজদের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে শ্রমিকদের এদের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য প্রশাসনে ভূমিকা নিতে হবে।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন, কোম্পানীগঞ্জ পাথর উত্তোলন ও বহনকারী শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়নের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, কার্যনির্বাহী সভাপতি আব্দুল বাছির, সহ সভাপতি মানিক মিয়া, সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক ফয়সল আহমদ বাদশা, আইন বিষয়ক সম্পাদক নুরুল ইসলাম, দয়ারবাজার শাখা সভাপতি ফারুক মিয়া, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল আহমদ, শাখার সাধারণ সম্পাদক কাজল সিল, উৎমা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুধীর চন্দ্র দাস, শ্রমিক নেতা হিরা মিয়া, দিলু মিয়া, জামাল উদ্দিন প্রমুখ।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..