প্রচ্ছদ

কানাইঘাটে ভিজিএফ’র চাল আটক নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে চেয়ারম্যানদের মতবিনিময়

১০ জুন ২০১৯, ২১:২২

কানাইঘাট প্রতিনিধি ::

Sharing is caring!

কানাইঘাট রাজাগঞ্জ ইউনিয়নে ৪টি ওয়ার্ডের কার্ডধারীদের মধ্যে ভিজিএফ’র ৪৩ বস্তা চাল কিছু লোকজন কর্তৃক রাস্তায় গত ৪ জুন আটককে কেন্দ্র করে রাজাগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলামের বিরুদ্ধে কানাইঘাট থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ভিজিএফ’র চাল আটকের পর থেকে এ নিয়ে রাজাগঞ্জ ইউনিয়নের জনসাধারন ও জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে নানা ধরনের প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে। উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ রাজাগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম ও তার পরিষদের ৪জন ইউপি সদস্যকে ফাঁসানোর উদ্দেশ্যে রাস্তায় ভিজিএফ’র চাল আটকের ঘটনাটি সম্পূর্ণ ষড়যন্ত্র আখ্যায়িত করে চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম কে মামলা থেকে অব্যাহতি ও উচ্চ পর্যায়ে তদন্ত পূর্বক প্রকৃত দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী বিভিন্ন মহলের কাছে জানিয়ে আসছেন। ইতিমধ্যে চেয়ারম্যানবৃন্দ সিলেট ৫ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব হাফিজ আহমদ মজুমদার, জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানা, রাজনৈতিক মহল ও কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আহাদের সাথে সাক্ষাত করেছেন। ভিজিএফ’র চাল আত্মসাতের সাথে চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম ও পরিষদের কোন ইউপি সদস্য জড়িত নয় তাদের পরিকল্পিত ভাবে রাজাগঞ্জ ইউনিয়নে নানা অপকর্মের সাথে জড়িত লুৎফুর, শহিদ গংরা ভিজিএফ’র চাল বিতরনের জন্য নিয়ে যাবার সময় আটক করে ষড়যন্ত্রের নাটক সাজিয়েছে বলে চেয়ারম্যানরা জানিয়েছেন। এব্যাপারে গত রবিবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে কানাইঘাট প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দের সাথে মত বিনিময় করেন উপজেলার ৮ ইউপির চেয়ারম্যানবৃন্দ। মতবিনিময়কালে চেয়ারম্যানরা ভিজিএফ’র চাল আটকের ঘটনায় স্থানীয় সাংবাদিকদের বস্তু নিষ্ট সংবাদ প্রকাশ এবং কানাইঘাট প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে অনুসন্ধান পূর্বক সঠিক তথ্য উপাত্ত জন সম্মুখে তোলে ধরার দাবী জানান। মতবিনিময় কালে চেয়ারম্যানবৃন্দ জনপ্রতিনিধিদের এভাবে হেনস্থা না করে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার দাবী জানান। ইতিমধ্যে তারা কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে একটি জরুরী সভা ডাকার জন্য উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুমিন চৌধুরীকে অনুরোধ করলেও তিনি কোন সভা ডাকেননি বলে অভিযোগ করেন তারা। মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন, কানাইঘাট লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউপির চেয়ারম্যান ডাঃ ফয়েজ আহমদ, লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপির চেয়ারম্যান জেমস লিও ফারগুশন নানকা, দিঘীরপার পূর্ব ইউপির চেয়ারম্যান আলী হোসেন কাজল, বড়চতুল ইউপির চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হোসেন, সদর ইউপির চেয়ারম্যান মামুন রশিদ, বানীগ্রাম ইউপির চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ, ঝিঙ্গাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন, সাতবাক ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুন নূর। কানাইঘাট প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের মধ্যে এ সময় উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সাধারন সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, সহ সম্পাদক আব্দুন নূর, সদস্য আমিনুল ইসলাম, শাহিন আহমদ, সুজন চন্দ অনুপ।

  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর

আর্কাইভ

shares