সাত বছর ধরে আইনজীবী পরিচয়ে প্রতারণা, অতঃপর

প্রকাশিত: ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ, মে ৭, ২০১৯

সাত বছর ধরে আইনজীবী পরিচয়ে প্রতারণা, অতঃপর

Sharing is caring!

ঢাকা আইনজীবী সমিতির টাউট উচ্ছেদ কমিটির অভিযানে হাতেনাতে গ্রেফতার ভুয়া আইনজীবী সুফিয়া খানম রিমি ওরফে মোছাম্মত মৌকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম আদালতে তাকে হাজির করে পুলিশ। এ সময় মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক মোবারক হোসেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মহানগর হাকিম দেবদাস চন্দ্র অধিকারী তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

কোতয়ালী থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মৌয়ের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে কোতয়ালী থানায় একটি মামলা হয়েছে। তার পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না।

ঢাকা আইনজীবী সমিতির টাউট উচ্ছেদ কমিটির অন্যতম সদস্য মো. ইব্রাহিম (খলিল) বলেন, মোছা. মৌ আদালতে এ পর্যন্ত অনেক প্রতারণা করেছেন। তিনি বিচারপ্রার্থীদের কাছ থেকে প্রচুর টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। তার আইন পেশা পরিচালনা করার মতো কোনো ডিগ্রি নেই। অথচ সাত বছর ধরে আইনজীবী পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে আসছেন। এ ছাড়া তিনি জালিয়াতির মাধ্যমে ঢাকা আইনজীবী সমিতির আইডি কার্ড তৈরি করে তার গলায় নিয়মিত পরিধান করতেন।

প্রসঙ্গত, গত রোববার ঢাকা আইনজীবী সমিতির টাউট উচ্ছেদ কমিটি ভুয়া আইনজীবী মোছা. মৌকে হাতেনাতে আটক করে। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে প্রতারণা ও জাল-জালিয়াতির অভিযোগে কোতয়ালী থানায় মামলা করা হয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares