প্রচ্ছদ

সদর উপজেলায় নির্বাচন : শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

১৫ মার্চ ২০১৯, ০০:১৫

crimesylhet.com

Sharing is caring!

আফজালুর রহমান চৌধুরী :: ১৮ ই মার্চ পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সমর্থকদের নিয়ে সিলেট সদর উপজেলার সর্বত্র ঘোরে ভেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা। মিটিং মিছিল আর মাইকিং এর স্লোগানের আওয়াজে মুখরিত উপজেলা। তুলনায় কম হলেও শেষ সময়ে নির্বাচনি আমেজ বিরাজমান হচ্ছে উপজেলায়। চায়ের টেবিল থেকে শুরু করে সমবেত আলোচনায় ও বাদ পড়ছেনা প্রার্থী বাছাইয়ের আলাপন।

উপজেলার ৮ ইউনিয়নে ১০৫,৫৫৪ পুরুষ ও ৯১,৮৮২ মহিলা ভোটার নির্বাচনী এলাকায়। মোট ১,৯৭,৪৩৬ ভোটারে মন জয়ে লক্ষে উপজেলার চেয়ারম্যান পদে ৫ ভোট যোদ্ধা নামেন নির্বাচনী মাঠে।

মনোনয়নে ৫ যোদ্ধা আওয়ামী লীগের আশফাক আহমদ (নৌকা), জাতীয় পার্টির শাহ কামাল সিরাজী (লাঙ্গল), ইসলামী ঐক্য জোটের আব্দুস সালাম (মিনার), স্বতন্ত্র মাজহারুল ইসলাম ডালিম (আনারস) এবং নুরে আলম সিরাজী (মোটরসাইকেল) প্রতীক পান।

দুই প্রার্থীর প্রচারণা না দেখা গেলও হাল ছাড়ছেন না ৩ জন। জানাযায়, আলোচনায় রয়েছেন য়ারা এদের মধ্যে সরকার দলীয় মনোনয়নে নৌকা প্রতীক পান উপজেলার বার বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান আলহাজ্জ্ব আশফাক আহমদ।
ও বিদ্রোহী হয়ে মাঠে রয়েছেন মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট নুরে আলম সিরাজী

এদিকে সরাসরি বিএনপি মনোনিত প্রার্থী না থাকলেও আনারস প্রতীক নিয়ে মাঠে রয়েছেন খাদিমপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বিএনপির সদ্য বহিষ্কৃত সিলেট জেলা বিএনপির উপদেষ্টা মোঃ মাজহারুল ইসলাম ডালিম।

নির্বাচনী মাঠ ঘোরে দেখাযায়, নৌকার জনপ্রীয়তা উপজেলাবাসীর তুঙ্গে। শুধু দলীয় নয় বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জাসদ ও নির্দলীয় লোকেরাও কাজ করছেন এই প্রীয় নেতার পক্ষে। জনগণের মতে উন্নয়নের রূপকার এই নেতাই পারেন উক্ত উপজেলাকে আলোকিত উপজেলা গড়তে।

অন্যদিকে নিকটবর্তী আলোচনায় আনারস প্রতীকের নাম থাকলেও সমালোচনাও কম নয় এই মার্কার প্রার্থীর। গত মঙ্গলবার (১২ মার্চ) উপজেলার কাকুয়ার পারে মোটরসাইকেল প্রতীক সমর্থকদের আয়োজনে করা হয় নির্বাচনী প্রচারণার মিটিং। অনুষ্ঠান শেষ হতে না হতেই চলে আসেন আনারস মার্কার সমর্থক। একই স্টেজে শুরু হয় আবার আনারস মার্কার প্রচারণা মিটিং এতে এলাকাবাসীর মধ্যে শুরু হয় সমালোচনা ঝড়। বিষয়টি গ্রাম থেকে ছড়িয়ে এখোন তোলপাড় করছে উপজেলার সর্বত্র। এমনকি বিষয় টি নিয়ে জনগণের মনে বিরাজমান করছে ভিন্নতা। এ যেনো নৌকা ডুবাতে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী ও বিএনপি’র জুট।

  •  
  •  
  •  

আর্কাইভ

shares