| logo

৯ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৩শে মার্চ, ২০১৯ ইং

পাকিস্তান সুবিধা মতো সময়ে জবাব দেবে: ইমরান

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯, ১০:৫৬

পাকিস্তান সুবিধা মতো সময়ে জবাব দেবে: ইমরান

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক: ভারতীয় জঙ্গি বিমানের হামলায় কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে দাবি করেছে পাকিস্তান। তবু অনাবশ্যক এই আগ্রাসনের উপযুক্ত জবাব যথাসময়ে দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে দেশটি। সম্ভাব্য সব ধরনের পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে সশস্ত্র বাহিনী ও জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আধা সামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জওয়ান নিহত হওয়ার জবাবে মঙ্গলবার ভোরে পাকিস্তানে ঢুকে বিমান হামলা চালায় ভারত। এতে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদের ৩০০ জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত। পুলওয়ামায় ওই আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছিল জইশ-ই-মুহাম্মদ।

পাকিস্তানি পত্রিকা ডন–এর এক প্রতিবেদনের বলা হয়, ভোররাতে ভারতীয় জঙ্গি বিমানের হামলার পর মঙ্গলবার জরুরি বৈঠকে বসে পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা কমিটি। পরে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, ভারত অপ্রয়োজনীয় আগ্রাসন চালিয়েছে। এর জবাব পাকিস্তান তার সুবিধাজনক সময়ে দেবে। সম্ভাব্য সবকিছুর জন্য প্রস্তুত থেকে দেশের সশস্ত্র বাহিনীসহ দেশের জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ডন–এর অপর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আসিফ গফুর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘যা কিছু ঘটতে যাচ্ছে, তার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। আমরা সবাই প্রস্তুত। এখন আমাদের জবাব দেখার জন্য ভারতের অপেক্ষার পালা।’

এর আগে সকালের দিকে বেশ কয়েকটি টুইট করেন জেনারেল আসিফ গফুর। এর সঙ্গে কয়েকটি ছবিও দেন। তিনি দাবি করেন, ভারতীয় বিমানবাহিনীর যুদ্ধবিমানগুলো মুজফফরাবাদ সেক্টর দিয়ে সীমান্ত অতিক্রম করে ঢুকে পড়লেও পাকিস্তানের কোনো ক্ষতি করতে পারেনি। মাত্র তিন-চার মাইল ভেতরে তারা আসতে পেরেছিল। পাকিস্তানি বিমানবাহিনীর প্রতিরোধের মুখে বালাকোটের কাছে ফাঁকা জমিতে বোমা ফেলে তড়িঘড়ি তারা পালিয়ে যায়। গফুর বলেন, ওই হামলায় কোনো অবকাঠামোর বিন্দুমাত্র ক্ষতি হয়নি। কেউ হতাহতও হয়নি।

ভারতের হামলার পর অর্থমন্ত্রী আসাদ উমর ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী পারভেজ খাট্টাকের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি। এ সময় তিনি বলেন, ভারত আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণরেখা লঙ্ঘন করেছে। আত্মরক্ষার অধিকার পাকিস্তানের আছে। এই ঘটনার জবাব দেওয়া হবে। পাকিস্তানকে চ্যালেঞ্জ জানানোর দুঃসাহস ভারতের না দেখানোই ভালো।

পাকিস্তানের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাও তুলে ধরেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ভারতের ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন নীতি’ বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে উদ্যোগী হবে তাঁর দেশ। ভারত যে জায়গায় আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণরেখা লঙ্ঘন করেছে, সেখানে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে নিয়ে যাওয়া হবে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বুধবার ন্যাশনাল কমান্ড অথরিটির (এনসিএ) বিশেষ বৈঠক ডাকবেন। যেকোনো পরিস্থিতির জন্য সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত থাকবে।

ভারত অবশ্য এবারই প্রথম পাকিস্তানের ভেতরে ঢুকে অভিযান পরিচালনা করল না। দুই বছর আগে কাশ্মীরের উরি সেক্টরে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতীয় পদাতিক বাহিনী ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ চালায়। ওই অভিযানে একাধিক জঙ্গি আস্তানা গুঁড়িয়ে দেওয়ার দাবি করেছিল নয়াদিল্লি। পাকিস্তান তখনো বলেছিল, কোনো হামলা হয়নি, ক্ষতিও হয়নি।



সংবাদটি 90 বার পঠিত.
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    6
    Shares
  • 6
    Shares




Contact Us

crimesylhet.com

Address: অফিস : সুরমা মার্কেট তৃতীয় তলা বন্দরবাজার সিলেট।

Tel : +অফিস -০১৭১১-৭০৭২৩২
Mail : crimesylhet2017@gmail.com

Follow Us

Site Map
Show site map

ক্রাইম সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েভ সাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।