বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ১০ : দোকানঘর ভাংচুর

প্রকাশিত: ১১:৫৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৯

বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ১০ : দোকানঘর ভাংচুর
বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথ জায়গা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে মহিলা’সহ উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন লোক আহত হয়েছে। বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নের উদয়পুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।
এসময় বিরোধপূর্ণ ভূমিকে স্থাপনাকৃত একটি দোকান ঘর ভাংচুর করা হয়। সংঘর্ষে আহতরা হলেন- উদয়পুর গ্রামো মৃত জহুর আলীর পুত্র জুনুর আলী (৬০), তার পুত্র চেরাগ আলী (৩৫), নূর আলী (২৫), চেরাগ আলীর স্ত্রী সেলিনা বেগম (৩০), আবুল কালামের পুত্র আবু সালেক তোতা (২৫), আব্দুল বারীর পুত্র গোলাম মওলা (৩৫), ছুরাব আলীর পুত্র আমির হোসেন ছমির (২৭), আব্দুল কুদ্দুছের পুত্র আবু ইউসুফ হেলাল (২২), ছাতক উপজেলার খিদরা গ্রামের মানিক মিয়া (৭০) ও তার পুত্র কালাম (২৭)। গুরুতর আহতদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে জানা যায়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
জানা গেছে, উদয়পুর দারুল আরকাম মাদ্রাসার পার্শ্বের ভূমি নিয়ে দীর্ঘদিন দিন যাবৎ গ্রামবাসীর সঙ্গে বিরোধ চলে আসছে একই গ্রামের জুনাব আলী গংদের। বিরোধপূর্ণ জায়গার জুনাব আলী গংরা একটি দোকান ঘর নির্মাণ করে ভোগদখল করে আসলে উক্ত ভূমি উদয়পুর দারুল আরকাম মাদ্রাসার স্বত্ব বলে দাবি করেন গ্রামবাসী। এনিয়ে উভয় পক্ষে পাল্টাপাল্টি মামলা রয়েছে। বিষয়টি এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ একাধিকবার শালিশের মাধ্যমে বিষয়টি নিস্পত্তির উদ্যোগ নিয়েও ব্যর্থ হন। বুধবার সকাল ৭টায় গ্রামবাসী বিরোধপূর্ণ জায়গার উপর থেকে জুনাব আলী গংদের নির্মিত পাকা দোকানঘর ভেঙ্গে ঘুড়িয়ে দেন। এসময় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ লেগে যায়। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০জন লোক আহত হন।
জুনাব আলী জানান- নিজেদের জায়গার উপর দোকান ঘর নির্মাণ করে তারা দীর্ঘদিন যাবৎ ভোগদখল করে আসছেন। কিন্ত তাদের মালিকানাধিন জায়গা মাদ্রাসার স্বত্ব বলে দাবি করে আসছেন গ্রামবাসী। কিন্ত বিষয়টি বিচারাধীণ থাকাবস্থায় বুধবার সকালে মাশুক মিয়া, ছুরুক মিয়া, করিম মিয়া ও আবু সালেহ তোহা সহ গ্রামের লোকজন একত্রিত হয়ে দোকানঘরটি ভেঙ্গে ফেলেন। এসময় তাদের হামলায় আহত হয়েছেন জুনাব আলীর ভাই জুনুর আলী সহ ৬ জন।
উদয়পুর গ্রামের সিদ্দিকুর রহমান বলেন- মাদরাসার জায়গার উপর জুনাব আলী গংরা কর্তৃক অবৈধভাবে নির্মিত ঘরটি আমরা উচ্ছেদ করেছি। এসময় দখলকারীদের হামলায় গ্রামের কয়েকজন লোক আহত হয়েছেন। গ্রামবাসীর উপর আনিত হামলার অভিযোগ সঠিক নয়।
এব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন- খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ প্রেরণ করা হয়। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

February 2019
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
232425262728  

সর্বশেষ খবর

………………………..