আপিলেও টিকলো না মুহিব-সরদার’র মনোনয়ন

প্রকাশিত: ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৮

আপিলেও টিকলো না মুহিব-সরদার’র মনোনয়ন
বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: মনোনয়ন বাছাইয়ে রিটার্নিং অফিসারের দেয়া সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করেও প্রার্থীতা ফিরে পেলেন না সিলেট-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের দুই বারের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম‌্যান মুহিবুর রহমান ও শিক্ষাবিদ অধ‌্যক্ষ ড. এনামুল হক সরদার।
শুক্রবার আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে এজলাসে ২য় দিনের মতো আপিল আবেদনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী এ আপিল শুনানি শুরু হয়। ইসি সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বিচারকদের মুখপাত্র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
সিলেট-২ আসনে মোট ১২জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। গত ২ ডিসেম্বর জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার এম কাজী এমদাদুল ইসলামের কার্যালয়ে প্রার্থীদের মনোনয়ন যাচাই-বাছাই করা হয়। এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী মুহিবুর রহমান, ড. এনামুল হক সরদার ও মোহাম্মদ আব্দুর রব এর মনোনয়ন বাতিল এবং ৯ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।
যাদের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়- কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব ও বর্তমান সংসদ সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া, ‘নিখোঁজ’ ইলিয়াস আলীর স্ত্রী বিএনপি চেয়াপার্সনের উপদেষ্ঠা তাহসিনা রুশদীর লুনা ও তার ছেলে ব্যারিস্টার আববার ইলিয়াস অর্ণব, গণফোরাম নেতা মোকাব্বির খান, কেন্দ্রীয় খেলাফত মজলিসের যুগ্ম-মহাসচিব মুনতাসির আলী, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের মুশাহিদ খান, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মনোয়ার হোসেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা আমির উদ্দিন, হাবিবুর রহমান।
বৈধ প্রার্থীরা আগামী ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে পারবেন। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ করা হবে। প্রার্থীরা ১১ ডিসেম্বর থেকেই প্রচারে নামতে পারবেন। ভোটগ্রহণ আগামী ৩০ ডিসেম্বর।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..