সুনামগঞ্জে দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৩০

প্রকাশিত: ১১:৪৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৮

সুনামগঞ্জে দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৩০

Sharing is caring!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায়দ‚র্গা প‚জায় গ্রামের প‚জা মন্ডপে ব্যানার টানানোকে কেন্দ্র করে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ৩০জন আহত হয়েছে। উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের ভুরাঘাট গ্রামের পিছনে শুক্রবার দুপুরে এ সংঘষের্র ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত ৩জন(জিতেন্দ্র,জুয়েল,নিপেন্দ্র)কে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়াও দুপক্ষের ৬জনকে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েেেছ তারা হলেন,অষ্টমী বর্মন(৩৫),নিয়তী বর্মন(৫০),দুলাল বর্মন(২২),শুভাষ বর্মন(১৮),শ্রী মতি বর্মন(৬৫),সুকুমার দাস। অন্যান্য অন্যান্য আহতদের স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
স্থানীয় এলাকাবাসীর সূত্রে জানাযায়,তাহিরপুর উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের ভুরাঘাট গ্রামের জিতেন্ড বর্মন ও রাজিন্ড বর্মনের মধ্যে কথা দীর্ঘ দিন ধরেই বিরোধ চলছিল। এর ই সূত্র ধরে লোকজনের মধ্যে গত দ‚র্গা প‚জায় গ্রামের প‚জা মন্ডপে ব্যানার টানানোকে কেন্দ্র করে জিতেন্ড বর্মন ও রাজিন্ড বর্মনের মধ্যে সকালে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে গ্রাম্য সালিশে স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্য সুধাংশু পালের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পতি হয়। শুক্রবার দুপুরে জিতেন্দ্র দাসের লোকজন চুনখলা হাওর থেকে মাছ শীকার করে বাড়ীতে ফেরার পথে ভুরাঘাট গ্রামের পিছনে অতুল বর্মনের লোকজন জিতেন্ড দাসের লোকজনকে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে বিষয়টি জিতেন্ড বর্মনের লোকজনের মধ্যে জানাজানি হলে দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রায় ঘন্টাব্যাপি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগীতায় সংর্ঘষ নিয়ন্ত্রনে আসে। এত দুপক্ষের ৩০আহত হয়। তাহিরপুর থানার ওসি এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ বা যোগাযোগ করে নি।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares