সিলেটের হোটেল তাজমহল থেকে ৫পতিতা আটক : টাকা পেয়ে ছেড়ে দেয় পুলিশ

প্রকাশিত: ৪:২৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১০, ২০১৮

সিলেটের হোটেল তাজমহল থেকে ৫পতিতা আটক : টাকা পেয়ে ছেড়ে দেয় পুলিশ

Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার :: সিলেট নগরীর লালবাজাস্থ হোটেল তাজমহল থেকে খদ্দেরসহ ৫ পতিতাকে আটক করে কোতোয়ালী পুলিশ। পরে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তাদের ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার সকালে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নগরীর বন্দরবাজার লালবাজারস্থ হোটেল তাজমহলে দীর্ঘদিন ধরে নারীদেহের ব্যবসা চলে আসছিল। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রাপ্ত-অপ্রাপ্ত বয়স্কা কিশোরী ও যুবতীদের এনে রেখে দেহব্যবসা করে আসছিল হোটেল কর্তৃপক্ষ। বন্দরবাজার ফাঁড়ি পুলিশের মাধ্যমে কোতোয়ালী থানা পুলিশকে বখরা দিয়ে হোটেল কর্তৃপক্ষ চাািলয়ে আসছিল নারীদেহের রমরমা ব্যবসা। কিন্তু কোতোয়ালী থানায় নবাগত ওসি মো. সেলিম মিয়া যোগদানের পর বখরা ও লেনদেন নিয়ে হোটেল কর্তৃপক্ষের মতবিরোধ সৃষ্টি হয় ওসি’র সাথে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওসি সেলিম মিয়ার নির্দেশে শনিবার ওই হোটেলে অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় পতিতাবৃত্তি ও অসামজিক কাজে লিপ্ত থাকা ৫ নারীসহ কয়েকজন খদ্দেরকে আটক করা হয়। তাদের থানায় নিয়ে যাওয়ার পর মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

বন্দরবাজার পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এসআই নজরুল ইসলাম কোতোয়ালী থানার ওসি’র নির্দেশে হোটেল তাজমহলে পুলিশী অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অভিযানে ৫ টু-নাইনটি (পতিতা) নারীকে আটক করে কোর্টে চালান দেয়া হয়েছে।

কিন্তু ওই দিন কোর্টে কোতোয়ালী পুলিশ কর্তৃক কোন ট-ুনাইনটি (খদ্দের-পতিতা) চালানের সত্যতা না পেয়ে থানার ওসি মো, সেলিম মিয়াকে ফোন করা হয়। তখন তিনি অভিযান ও ৫ নারী আটকের কথা স্বীকার করেন। তিনি আটককৃতরা বয়স্কা ও হোটেলের কাজের মহিলা হওয়ায় তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

তবে স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেছেন, ওই হোটেলে মাত্র একজন পরিচ্চন্ন মহিলা কর্মী কাজ করে থাকে। কাজের ওই মহিলাকে বাদ দিয়েই ৫যুবতী ও কিশোরীকে আটক করা হয় এবং হোটেল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা আদায় করে আটককৃত পতিতাদের ফের হোটেল কর্তৃপক্ষের কাছে ফিরিয়ে দেয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares