বিশ্বনাথে ঘর নির্মাণ করে জায়গা দখল : দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা

প্রকাশিত: 3:21 PM, November 2, 2018

বিশ্বনাথে ঘর নির্মাণ করে জায়গা দখল : দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা
বিশ্বনাথ প্রতিনিধি  :: সিলেটের বিশ্বনাথে বিরোধপূর্ণ বাঁশের বেড়া দিয়ে ও টিনের ঘর নির্মাণ করে জায়গায় দখলকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। গত বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের পশ্চিম ধলিপাড়া গ্রামের এঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, পশ্চিম ধলিপাড়া গ্রামের আনোয়ার হোসেন (৪৪) ও মুজিবুর রহমান নিদানি (৫৫) গংদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জায়গা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এনিয়ে আদালতে মামলা-মোকদ্দমা বিচারাধীন রয়েছে। কিন্ত গত বুধবার দিবাগত রাতে বিরোধপূর্ণ জায়গায় (প্রবেশ রাস্তায়) মুজিবুর রহমান নিদানি গংরা বাঁশের বেড়া ও টিনের ঘর নির্মাণ করে জায়গা দখল করেন। এবিষয়ে বৃহস্পতিবার (১ নভেম্বর) মুজিবুর রহমান নিদানি’সহ ১৮জনকে অভিযুক্ত করে বিশ্বনাথ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন আনোয়ার হোসেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই দিন বিকেলে বিশ্বনাথ থানার এস আই লিটন রায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এসময় উভয় পক্ষের লোকজনদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করে।
থানায় লিখিত অভিযোগে আনোয়ার হোসেন উল্লেখ করেন- অভিযুক্তরা বুধবার দিবাগত রাত ৪টায় তার (আনোয়ার) বাড়ির রাস্তার উপর বাঁশের বেড়া ও টিনের ঘর নির্মাণ করেন। পরদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে তিনি বাড়ির রাস্তার উপর বাঁশের বেড়া ও টিনের ঘর নির্মিত দেখে বিবাদীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গেলে তারা (মুজিবুর রহমান গংরা) অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বাদি পক্ষের উপর আক্রমণ করেন। তখন নিরুপায় হয়ে ও প্রাণের ভয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে তারা বাড়িতে চলে যান। বিবাদীরা রাস্তাঘাটে যেখানেই বাদি পক্ষের লোকজনকে পান সেখানেই তাদের প্রাণে হত্যার হুমকি প্রদান করেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন আনোয়ার হোসেন।
বিরোধপূর্ণ জায়গাটি নিজেদের দাবি করে ও হুমকি প্রদানের অভিযোগ অস্বীকার করে মুজিবুর রহমান নিদানি বলেন- আমাদের জায়গার উপর আমরা বেড়া দিয়েছি ও ঘর নির্মাণ করেছি।
এব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার এসআই লিটন রায় বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রাথমিক তদন্তে জায়গা দখলের সত্যতা পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..