সিলেটের কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল এখন অপরাধের আস্তানা

প্রকাশিত: ১০:২০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০১৮

সিলেটের কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল এখন অপরাধের আস্তানা

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : অপরাধের আস্তানা সিলেটের কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল। সিলেটের দক্ষিণ সুরমার কদমতলিস্থ এ বাস টার্মিনাল শ্রমিক মালিক নিজেদের আধিপত্য বিরাজ করতে পুরো টার্মিনাল যেন এক অপরাধের ফাঁদ তৈরী হয়ে আছে। গোটা টার্মিনাল ঘিরে রয়েছে অপরাধ কর্মকান্ড। এছাড়াও বাস টার্মিনালের অবস্থা শোচনীয়, নোংরা। সাধারণ যাত্রীরা টার্মিনালের ভিতরে গিয়ে গাড়িতে উঠতে নারাজ।

বাস টার্মিনালের পরিবেশ যাত্রী বান্ধবের পরিবর্তে, অপরাধ বান্ধব হয়ে উঠেছে। এমন কোন কু-কর্ম নেই যা হয় না সিলেট বাস টার্মিনালে। গাড়ির চেয়ে যত্রতত্র অবৈধ দোকান পাটের হাট যেন গোটা টার্মিনাল জুড়ে।

শ্রমিকদের একটি চক্র ট্রামিনালে অন্যায়-অপকর্ম বাস্তবায়নে সক্রিয়। বাস মালিকদের তোষামোদি ও শ্রমিকদের উপর সেচ্ছাচারি আচরন করে অনেক শ্রমিক হয়ে গেছেন শ্রমিক নেতা। তাদের ইশারায় নিয়ন্ত্রন হয় টার্মিনাল। এক কথায় নিরাপদ নয় সিলেট কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল।

সিলেট মহানগরীর সবচেয়ে বড় বাস টার্মিনাল হচ্ছে দক্ষিণ সুরমায় অবস্থিত কদমতলি বাস টার্মিনাল। সিলেটের সাথে সারাদেশের সড়কপথে যোগাযোগের কেন্দ্রবিন্দু হচ্ছে এই বাস টার্মিনাল। এরকম অবস্থায় এই টার্মিনালের আধুনিকায়নে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক)।

সিলেট বিয়ানীবাজারের যাত্রী কামাল আহমদ বলেন, আমি কেন সচেতন বিবেক, রুচিশীল যাত্রীরা টার্মিনালের পরিবেশ দেখে টার্মিনালের ভিতরে গিয়ে বাসে উঠতে চায় না। টার্মিনালের পরিবেশ ভাল হওয়া দরকার।

সিলেট গোলাপগঞ্জের যাত্রী ছমির আলী বলেন, টার্মিনালের যেখানে সেখানে বাস রাখা ও দোকানপাটের জন্য পুরো এলাকা এক হ-য-ব-র-ল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ময়লা আবর্জনা, টুকাইদের উৎপাত ও পকেট মারদের জন্য টার্মিনালের ভিতরে যেতে মন চায় না। তাই রাস্তায় দাড়িয়েই গাড়িতে উঠি।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) আজহার আলী শেখ বলেন, সিলেটের দক্ষিণ সুরমা  কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনালের সার্বক্ষনিক নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে দক্ষিণ সুরমা ফাঁড়ি পুলিশ। টার্মিনালসহ আশপাশের এলাকায় যাতে কোনো অপরাধ কর্মকান্ড না ঘটে সেজন্য দক্ষিণ সুরমা ফাঁড়ি পুলিশ সব সময় তৎপর রয়েছে।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

October 2018
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

সর্বশেষ খবর

………………………..