বিশ্বনাথে বিয়ের প্রলোভনে কাজের মেয়ের সর্বনাশ : উল্টো চুরির মামলা

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৮

বিশ্বনাথে বিয়ের প্রলোভনে কাজের মেয়ের সর্বনাশ : উল্টো চুরির মামলা

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে কাজের মেয়ের সর্বনাশ করে উল্টো চুরির মামলা করতে গিয়ে ওসির কাছে ধরা পড়লেন গৃহকর্তা। তিনি বিশ্বনাথ উপজেলার রামধানা গ্রামের হাজী আব্দুল্লাহ’র পুত্র সাইদ আহমদ (৩৫)। সাইদ আহমদ দীর্ঘদিন ধরে তার ঘরের কাজের মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে আসছিলো। একপর্যায়ে কাজের মেয়ে অন্তঃস্বত্তা হলে বিষয়টি ওই গৃহকর্তাকে অবহিত করে। গৃহকর্তা এমন সংবাদ জানার পর বিভিন্ন সময়ে ওষুধ খাওয়াইয়া গর্ভের সন্তান নষ্ট করার কৌশল অবলম্বন করে। তাতেও কোনো লাভ হয়নি। গত ৮আগষ্ট গর্ভ নষ্ট করার জন্য কাজের মেয়েকে সিলেট মেরীষ্টোপ হাসপতালে নিয়ে যান গৃহকর্তা। সেখানে ওই গৃহকর্তার কথাবার্তায় সন্দেহ হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক গর্ভ নষ্ট করতে রাজি হননি। ওইদিন কাজের মেয়ে গৃহকর্তা সাইদ আহমদ’কে বিয়ের প্রস্তাব দিলে তিনি রাজি না হয়ে কৌশলে তাকে তার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। অবশেষে রোববার ওই গৃহকর্তা কাজের মেয়ের বিরুদ্ধে চুরির মামলা করতে থানায় চলে যান। মামলা করতে গিয়ে তার কথাবার্তায় ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম’র সন্দেহ হলে তাকে থানায় আটকিয়ে রাখেন। পরে কাজের মেয়েকে থানায় নিয়ে যাওয়া হলে বেরিয়ে আসে আসল রহস্য। এমন ঘটনার বর্ণনা দিয়ে রোববার রাতে তার বিরুদ্ধে কাজের মেয়ের মা বাদি হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং-(২১)।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..