সিলেট নগরীতে ড্যান্ডি নেশায় শিশু ও কিশোর আসক্ত

প্রকাশিত: ৮:৫৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ৮, ২০১৮

সিলেট নগরীতে ড্যান্ডি নেশায় শিশু ও কিশোর আসক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট নগরীর একটি ব্যস্ততম শিল্প এলাকা বন্দরবাজার। এই এলাকায় পথ শিশু ও কিশোরদের কাছে ড্যান্ডি বা রঙ্গীন নামক নেশা এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সরকারী তদারকী আর সমাজ পতিদের অলসতার কারনে এই নেশার কবলে পরে নিজেদের মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে এসব শিশু আর কিশোরেরা। বাড়ছে চুরি, ছিনতাই এবং সব ধরনের অন্যায় অপরাধ।

সরজমিনে জানাগেছে, নগরীর সুরমা মার্কেট এলাকা, লালদিঘীর পাড়, দক্ষিণ সুরমাসহ বিভিন্ন এলাকায় সড়ক-মহাসড়ক ও রাস্তায় প্রকাশ্যে ড্যান্ডি নেশা করতে দেখা যায় শ্রমজীবি শিশু, কিশোর ও যুবকদের। এদের বয়স সাত থেকে বিশ বছরের মধ্যে। অনেক স্থানে বড়দেরও এই নেশা করতে দেখা গেছে। বাসের ছাদে, টার্মিনালে, মার্কেটের আড়ালে শ্রমজীবি শিশু ও কিশোররা নেশা করে থাকে বলে জানায় অনেকে।

লালদিঘীর পাড়ের জাহাঙ্গীর (১৮), বলে তার মত অনেক শিশু ও কিশোরেরা জানায়, তারা মহল্লা, ডাষ্টবিন ও রাস্তা থেকে বোতল, পলিথিন, টিন, লোহা, কাগজসহ বিভিন্ন দ্রব্য টুকিয়ে নিয়ে তা ভাঙ্গারীর দোকানে বিক্রি করে থাকে। অনেক সময় মার্কেটের অরক্ষিত বৈদ্যুতিক বাতি, মালামালসহ বিভিন্ন কিছু চুরি করে নিয়ে বিক্রি করে থাকে। এসব টাকা দিয়ে দোকান থেকে হলুদ রঙ্গে পেষ্টিং গাম কিনে এনে তা পলিথিনের ভেতর ঢুকিয়ে মুখে নিয়ে নি:শ^াসের মাধ্যমে নেশা করে থাকে। অনেকে বিভিন্ন কষ্টের জন্য, অনেকে বন্ধুদের পাল্লায় পরে আবার অনেকে দেখে দেখে আসক্ত হচ্ছে এই নেশায়। এই নেশা করলে নাকি পৃথিবীটা তাদের কাছে রঙ্গীন মনে হয়।

এ ব্যাপারে নগরীর সচেতন মহল জানান, এতে সরকারী ভাবে কঠিন পদক্ষেপ নিতে হবে। অচিরেই নষ্ট হতে চলছে উঠতি বয়সী শিশু, কিশোর আর যুবকেরা।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..