সিলেটে ব্যানার ফেস্টুন বিলবোর্ড অপসারণ অভিযান

প্রকাশিত: ৬:১৭ অপরাহ্ণ, জুন ২১, ২০১৮

সিলেটে ব্যানার ফেস্টুন বিলবোর্ড অপসারণ অভিযান

স্টাফ রিপোর্টার :: সিলেট, ২১ জুন- সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে বিভিন্ন স্থানে ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড ইত্যাদি অপসারণের কাজ শুরু হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (২১জুন) সকালে সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকার র্কোট পয়েন্ট, বন্দরবাজার ও জিন্দাবাজারে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানের সময় র্কোট পয়েন্টর ওভার ব্রিজের পাদদেশসহ আশপাশ এলাকায় সম্ভাব্য প্রার্থীদের বিলবোর্ড, ব্যানার ইত্যাদি উচ্ছেদ করা হয়। অভিযান পরিচালনাকালে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ জেড এস নুরুল হক, সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনা খাতুন, সিলেট সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) রুহুল আলম, সিসিকের লাইসেন্স অফিসার জাহাঙ্গির আলমসহ সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা।

এ সময় র্কোট পয়েন্ট এলাকায় বিভিন্ন নির্বাচনী ব্যানার, পোস্টার ইত্যাদি অপসারণ করা হয়।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ জেড এস নুরুল হক বলেন, ‘নির্বাচনের আইন ও বিধি অনুযায়ী প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না হওয়া পর্যন্ত কেউ কোনো পোস্টার, ব্যানার, লিফলেট, বিলবোর্ড লাগাতে পারবেন না। যদি কেউ লাগান তবে আচরণবিধি লঙ্ঘিত হবে। যারা আচরণবিধি বা নির্বাচনের আইন লঙ্ঘন করবেন, তাদের ব্যাপারে আমরা অত্যন্ত সচেতন। যাতে কেউ বিধি লঙ্ঘন না করেন সে ব্যাপারে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।’

তিনি বলেন, ‘জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন সবার সমন্বয়ে নির্বাচন যাতে সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ হয় সে ব্যাপারে আমরা সবাই সচেতন। আমরা একত্রে সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করছি। ভোটার, জনগণসহ সিলেটবাসী সবাই নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা। যেন নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ হয় এবং সবাই শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিতে পারেন।’

তিনি সম্ভাব্য প্রার্থী ও সমর্থকদের লাগানো পোস্টার, বিলবোর্ড নিজ উদ্যোগে অনতিবিলম্বে নামিয়ে ফেলার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ জেড এস নুরুল হক বলেন,সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ৯টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। কেউ আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

উল্লেখ্য, সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে ১৩ জুন। তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ২৮ জুন, মনোনয়নপত্র বাছাই হবে ১-২ জুলাই, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৯ জুলাই , প্রতীক বরাদ্দ ১০ জুলাই এবং ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে ভোট গ্রহণ। এ সিটি করপোরেশনের ২৭টি সাধারণ ও ৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ভোটারসংখ্যা ৩ লাখ ২১ হাজার ৭৩২ জন।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

June 2018
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30  

সর্বশেষ খবর

………………………..