গোয়াইনঘাটে মিথ্যা মামলা দিয়ে অসহায় পরিবারকে হয়রানী

প্রকাশিত: ৩:৩৩ অপরাহ্ণ, জুন ৬, ২০১৮

গোয়াইনঘাটে মিথ্যা মামলা দিয়ে অসহায় পরিবারকে হয়রানী

আলী হোসেন,গোয়াইনঘাট,প্রতিনিধি :: সিলেটের গোয়াইনঘাটে মিথ্যা মামলা দিয়ে অসহায় একটি পরিবারকে হয়রানী করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে গত ৩০এপ্রিল/১৮ইং এজহারে ২জনের নাম উল্লেখ করে দায়ের করা হয়। উক্ত মামলা আদালতে দায়েরের পর গোয়াইনঘাটে আসলে আতংক দেখা দেয় মামলার অভিযুক্তদের মাঝে। মামলার পর ভোক্তভোগী অসহায় ঐ পরিবারের সদস্যরা। বিষয়টির সত্যতা যাচাই বাচাই করত উক্ত বিষয়ে করনীয় নির্দারনে এলাকার জনপ্রতিনিধি,সচেতনদের দ্বার¯ হয়েও কোন সুরাহা হচ্ছেনা। বিষয়টি ইতিপূর্বে স্থানীয়ভাবে নিস্পত্তির উদ্দ্যেগ নেওয়া হলে বাদিনি জুসনা বেগম ও তার পরিবারের সদস্যরা ২৫হাজার টাকা ক্ষতিপুরন দাবি করলে অসহায় ঐ পরিবারের সদস্যরা তা দিতে সক্ষম না হওয়ায় তাদেও প্রস্তাব নাকচ করে দেন। এর পর থেকেই বাদিনী ও তার পরিবারের সদস্যরা অসহায় বিবাদীদের হুমকি প্রর্দশনসহ নানাবিধ ভয় ভীতি প্রর্দশন করে আসছে।

এবিষয়ে মামলার অভিযুক্ত আহসান উল্লা,আব্দুস শহীদ’র সাথে আলাপ করলে জানান,আমরা এ মামলার বিষয়ে অদৌ কিছু জানিনা। বাদীনি জুসনা বেগম আমাদের উপর মিথ্যা মামলা দায়ের করে এখন মামলা প্রত্যাহার করতে আমাদের কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করছে।

এবিষয়ে আলীরগাঁও ইউনিয়নের খলাগ্রামের শওকত আলী,কুদরত উল্লাহ জানান,বিবাদীরা অত্যান্ত ভালো মানূষ এবং সমাজের নিরিহ প্রকৃতির লোক। কখনো সমাজের কোন রাষ্ট্রদ্রোহি কাজ বা স্থানীয় এলাকায় কোন ধরনের অপৃতিকর ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত নয়। তবে বাদী পক্ষের সাজানো মামলা দায়ের করার অভিযোগ এলাকায় রযেছে। এতে করে এলাকার নিরিহ অসহায় মানূষদের হয়রানী করার অভিযোগ রয়েছে ব্যাপক।

এব্যাপারে জানতে চাইলে আলীরগাঁও ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড সদস্য শাহিন আহমদ’র সাথে আলাপ করলে তিনি জানান,মামলার বাদী এবং অভিযুদের নিয়ে বিভিন্ন সময় আমি বিষয়টি মিমাংসার লক্ষ্যে বসেছি কিন্তু বাদী পক্ষ আমার সিদ্দান্তকে উড়িয়ে দিয়েছে। সর্বশেষ আমার প্রতিনিধি দিয়েও তাদের এ বিষয়টির কোন সমাধান করতে পারিনী। আমার জানামতো যাদেরকে আসামী করা হয়েছে তারা অত্যান্ত নিরিহ এবং ভালো মানূষ। আমি এ বিষয়ে যতাযত কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

এ ব্যপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার(ভারপ্রাপ্ত)’র সাথে মোবাইল ফোনে আলাপ করলে তিনি প্রতিবেদককে জানান,সিলেট জেলা দায়রা জজ থেকে প্রেরিত অভিযোগ পেয়ে আমি উল্লেখিত আসামী এবং বাদী পক্ষকে তদন্তের স্বার্থে আমার কার্যালয়ে ডাকলে বাদী পক্ষ ঐ দিন তার মনোনিত স্বাক্ষিগনদের নিয়ে উপস্থিত হয় নাই। যার কারনে পরবর্তী তারিখে বিষয়টির শুনানী হবে।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

June 2018
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30  

সর্বশেষ খবর

………………………..