সিলেটে কৃষিপণ্যের দাম বাড়াচ্ছে অসাধু ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট

প্রকাশিত: ২:০৯ অপরাহ্ণ, মে ২০, ২০১৮

সিলেটে কৃষিপণ্যের দাম বাড়াচ্ছে অসাধু ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট

Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার :: রমজাননির্ভর কিছু কৃষিপণ্যের দাম অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে। কৃষক থেকে ভোক্তা পর্যন্ত ধাপে ধাপে এসব পণ্যের দাম বাড়ানো হয়েছে। মধ্যস্বত্বভোগীরা কারসাজি করে মুনাফা পেলেও বঞ্চিত হচ্ছেন কৃষক।

কৃষকরা ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হলেও আবার পকেট কাটা যাচ্ছে ভোক্তার। খুচরা বাজার থেকে বেশি দামে পণ্য কিনতে বাধ্য হচ্ছেন ভোক্তারা। কৃষক থেকে ভোক্তা পর্যন্ত কৃষিপণ্যের দামে দেখা দিয়েছে বিশাল পার্থক্য।

দেশের বিভিন্ন জেলায় কৃষক পর্যায়ে প্রতি কেজি বেগুন ৩০ টাকায় বিক্রি হলেও ঢাকার খুচরা বাজারে তা বিক্রি হচ্ছে ১১০ থেকে ১২০ টাকায়। একইভাবে ১৫ টাকা কেজিদরের কাঁচামরিচ ঢাকায় বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ৯০ টাকায়। বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বাজারে রমজানের সব কটি পণ্যের সরবরাহ পর্যাপ্ত হলেও দাম বাড়ানো হচ্ছে।

বরাবরের মতো এবারও একশ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট করে পণ্যের দাম বাড়াচ্ছে। যে যেভাবে পারছে পণ্যের দাম বাড়াচ্ছে। এছাড়া যার কাছে যা পাচ্ছে তাই তারা নিচ্ছে। এ কারণে সরকারের সব কটি বাজার তদারকি সংস্থাকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। যাতে করে ভোক্তার নাভিশ্বাস আর বাড়তে না পারে।

রোববার সিলেট নগরীর বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, খুচরা পর্যায়ে প্রতি কেজি বেগুন ১২০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। এছাড়া কাঁচামরিচ ৮০ থেকে ৯০ টাকা, শসা ৮০ টাকা, ধনেপাতা ১২০ টাকা, পুঁদিনাপাতা ২০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

একইদিন কৃষক পর্যায়ে প্রতি কেজি বেগুন ৩০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। এছাড়া প্রতি কেজি কাঁচামরিচ ১৫ টাকা, দেশি শসা ৩০ টাকা, ধনেপাতা ৬০ টাকা, পুঁদিনাপাতা ৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

দেখা গেছে, কৃষক পর্যায় থেকে ভোক্তা পর্যায় প্রতি কেজি বেগুনের দামের ব্যবধান ছিল ৮০ থেকে ৯০ টাকা। এছাড়া প্রতি কেজি কাঁচামরিচ ৬৫ থেকে ৭৫ টাকা, শসা ৫০ টাকা, ধনেপাতা ৬০ টাকা ও পুঁদিনাপাতায় ১৫০ টাকা দামের ব্যবধান ছিল।

পাইকারি ব্যবসায়ীদের হাত হয়ে খুচরা বাজারে যেতে পণ্যের দাম আরও বেড়ে যায়। খুচরা বিক্রেতারা সবজির দাম লাগামহীনভাবে বৃদ্ধি করেন।

কারণ মধ্যস্বত্বভোগীদের কাছে তারা কম দামে পণ্য বিক্রি করতে বাধ্য হন। অপরদিকে মধ্যস্বত্বভোগীরা বেশি লাভে পণ্য বিক্রি করায় ভোক্তারা পণ্য কিনতে হিমশিম খাচ্ছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

May 2018
S S M T W T F
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares