মাওলানা সাদকে নিয়ে বিতর্কফের তাবলিগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

প্রকাশিত: ৩:০৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৮, ২০১৮

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : আবারও রাজধানীর কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২৮ এপ্রিল) সকালে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে মসজিদের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরে দুই গ্রুপকে মসজিদ থেকে বের করে দেয়া পুলিশ।

জানা যায়, আজ সকালে বর্তমান মুরব্বি মাওলানা সাদের বিরোধীরা কাকরাইল মসজিদের সামনে অবস্থান নেয়। এক পর্যায়ে সাদ বিরোধীরা বলেন, মাওলানা সাদ যদি তার বিতর্কিত বক্তব্য থেকে সরে না আসে তাহলে তাকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেয়া হবে না। পরে তারা সাদের এক অনুসারিকে মারধর করে। এর সঙ্গে সঙ্গে তাদের দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারি শুরু হয়। এর আগে শুক্রবার রাতে কাকরাইল মসজিদ থেকে জ্যামার উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) রমনা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার (এডিসি) এইচ এম আজিমুল হক সাংবাদিকদের বলেন, আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে কাকরাইল মসজিদে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করেছি। তাদের দুই গ্রুপকে মসজিদ থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। বিষয়টি সমঝোতার জন্য আমরা তাদের সঙ্গে বসবো।

উল্লেখ্য,২০১৭ সালের ১৪ নভেম্বর রাজধানীর কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ জামাতের সদস্য মাওলানা জুবায়ের এবং সুরা সদস্য ওয়াসিফুল ইসলামের গ্রুপের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। জুবায়ের পাকিস্তান গিয়ে একটি জামাতে অংশ নিয়ে আহমেদ লাকশাহ নামের একজনের সঙ্গে দেখা করে। তিনি জুবায়েরের কাছে বাংলাদেশের তাবলিগ জামাতের সদস্যদের জন্য একটি বার্তা দিয়েছিলেন। তবে বাংলাদেশে এসে তিনি সে বার্তা জানাননি। সুরা সদস্যরা অন্য মাধ্যমে বার্তার বিষয়টি জানতে পারেন। সুরা সদস্যদের বৈঠকের সময় বিষয়টি উঠে আসে এবং তখনই দুইপক্ষের সংঘর্ষ শুরু হয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares