৫ লাখ টাকার বিনিময়ে পুলিশে চাকরি, নারী গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৮

Sharing is caring!

ক্রাইম ডেস্ক :: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশে চাকরির কথা বলে টাকা নেয়ার অভিযোগে ফুরকান নাহার (৪২) নামের এক নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গতকাল রবিবার রাতে কসবা উপজেলায় খাড়েরা ইউনিয়নের দেলী গ্রাম থেকে ওই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেফতার ফুরকান নাহার ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর থানার চরবাহাদুর গ্রামের মফিজ উদ্দিনের মেয়ে এবং একই গ্রামের রুহুল আমিনের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মো.জহিরুল ইসলাম খান নামের এক ব্যক্তি ফুরকান নাহারের বিরুদ্ধে কসবা থানায় মামলা করেন। বাদীর চাচাত ভাই মো.জমসিদ খানের পূর্ব পরিচিত ছিলেন ফুরকান নাহার। জমসিদের মাধ্যমে ওই নারীর সঙ্গে পরিচয় হয় জহিরুলের। তখন ওই নারী জানান, পুলিশের অনেক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার সঙ্গে তার পরিচয় আছে। পাঁচ লাখ টাকা দিলে পুলিশে চাকরি দিতে পারবেন তিনি।

চাচাত ভাই জমসিদ এবং ফুরকান নাহারের কথায় বিশ্বাস করে ছেলেকে পুলিশে চাকরি দেওয়ার  জন্য কয়েক মাস আগে ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা দেন জহিরুল ইসলাম। বাকি টাকা চাকরি হওয়ার পর দেয়ার কথা হয়। তবে চাকরি না দিয়েই গতকাল রোববার ফুরকান নাহার বাকি টাকা নিতে যান।

জমসিদ ও ওই নারী জহিরুলকে জানান, চলতি বছরের আগামী ৬ জুন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশে নিয়োগ হবে। সেখানে তার ছেলেকে চাকরি দিবেন তারা। তাদের কথায় জহিরুল ইসলামের সন্দেহ হলে তিনি ঘটনাটি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান কবির আহাম্মদ খানকে জানান।

পরে খাড়েরা ইউপি চেয়ারম্যান কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহিউদ্দিনকে খবর দিলে ফুরকান নাহারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন ওসি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বলেন, ফুরকান নাহার (৪২) নামের অভিযুক্ত নারীকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

February 2018
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
2425262728  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares