সিলেট-আখাউড়ার ট্রেনে চার দিনের তীব্র টিকিট সংকট

প্রকাশিত: 5:23 PM, November 17, 2017

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: সিলেট-আখাউড়া রেলপথে ঢাকা ও চট্টগ্রাম অভিমুখী সকল আন্তঃনগর ট্রেনে টানা চার দিনের তীব্র টিকিট সংকট শুরু হয়েছে। ঢাকা ও চট্টগ্রাম অভিমুখী দূরপাল্লার কোনো স্টেশনের আগাম টিকিট চেয়ে না পেয়ে সাধারণ যাত্রীরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। সাপ্তাহিক ছুটি ও বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার কারণে এ সমস্যার সৃষ্টি বলে রেলওয়ে স্টেশন মাস্টাররা জানান।

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলাধীন শ্রীমঙ্গল স্টেশন, কমলগঞ্জের শমশেরনগর ও সিলেট রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা যায়, ১৬ থেকে ১৯শে নভেম্বর পর্যন্ত সিলেট থেকে ঢাকামুখী দিনের বেলার আন্তনগর কালনী এক্সপ্রেস, জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস ও পারাবত এক্সপ্রেসের টিকিট নেই। আগেই যাত্রীরা এসব ট্রেনের টিকিট কিনে নিয়েছেন। রাতের বেলা ঢাকামুখী আন্তনগর উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনেরও কোনো আসন খালি নেই।

অনুরূপভাবে ঢাকা থেকে সিলেট অভিমুখী আন্তনগর পারাবত এক্সপ্রেস, জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস, কালনি এক্সপ্রেস ও উপবন এক্সপ্রেসে কোনো আসন খালি নেই। একই তারিখে সিলেট থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখী দিনের পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ও রাতের উদয়ন এক্সপ্রেসে ট্রেনে কোনো আসন খালি নেই।

চট্টগ্রাম থেকেও এই চারদিনে সিলেটমুখী আন্তনগর পাহাড়িকা ও উদয় এক্সপ্রেস ট্রেনের আসন খালি নেই। এসব যাত্রী আগে টিকিট কিনে নিয়েছেন তারা ব্যতীত বাকী যাত্রীরা পড়েছেন দুর্ভোগে। অনেক যাত্রীকে জরুরিভিত্তিতে ট্রেন ঢাকা ও চট্টগ্রাম যেতে হয়। টিকিট সংকটের কারণে তাদের দুর্ভোগ বেশি।

ট্রেন যাত্রী আব্দুল হান্নান, জয়নাল আবেদীন, সিদ্দিকুর রহমানসহ অনেকেই বলেন, আসলে যাত্রীর চাহিদার তুলনায় ট্রেনগুলো বগি ও আসন স্বল্পতায় এমন সমস্যার সৃষ্টি। তারা আরও বলেন, ঢাকার সঙ্গে দিনরাত ট্রেনের বিকল্প হিসেবে বাসযোগে যাতায়াত করা গেলেও চট্টগ্রামের সঙ্গে এ সুযোগ নেই। ফলে অনেককেই বাধ্য হয়ে ট্রেনে আসনবিহীন টিকিট কিনে সারা পথ দাঁড়িয়ে যেতে হয়।

অনেক যাত্রী আবার বলেন, বাসের তুলনায় ট্রেন ভ্রমণ আরামদায়ক ও অনেকটা নিরাপদ বলে এ সমস্যার মাঝে বাধ্য হয়ে আসনবিহীন টিকিট নিয়ে দাঁড়িয়ে যেতে হবে।

শমশেরনগর স্টেশন মাস্টার কবির আহমদ, শ্রীমঙ্গল স্টেশন মাস্টার সাখাওয়াত হোসেন ও সিলেট স্টেশন মাস্টার কাজী শহিদুর রহমান এই চার দিনে ঢাকা ও চট্টগ্রাম অভিমুখী সকল আন্তনগর ট্রেনের টিকিট সংকটের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তারা বলেন, এমনিতেই শুক্রবার ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটির কারণে বৃহস্পতিবার কোনো ট্রেনের আসন খালি থাকে না।

তার ওপর এ সপ্তাহে সিলেট, ঢাকা ও চট্টগ্রামে বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার কারণে আগেই টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে শুল্ক বিভাগে নিয়োগ পরীক্ষা ও বিভিন্ন ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা। ফলে আকস্মিকভাবে ট্রেনের টিকিট সংকট দেখা দেয়। ট্রেনগুলো বাড়তি বগি সংযোজন করে আসন বাড়ালে এ সমস্যার অনেকটা সমাধান হতে পারে বলেও নাম প্রকাশ না করে একজন রেল কর্মচারী জানান।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

November 2017
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..