আজ প্রথম পরীক্ষা চিটাগং ভাইকিংসের

প্রকাশিত: ১২:৫৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৭, ২০১৭

Sharing is caring!

দু’দিনে চারটি ম্যাচ হয়ে গেছে। ৬ দলই খেলার সুযোগ পেয়েছে। পঞ্চম বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) টি২০ আসরে শুরুতেই চমকের নাম হয়ে গেছে নবাগত সিলেট সিক্সার্স। দুই ম্যাচেই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে হেসেখেলে বড় ব্যবধানে জিতে এখন আলোচিত দল তারা। আর নিজেদের ভেন্যু সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তাই উৎসব লেগেই আছে স্বাগতিক দলের জয়ে। নামার সুযোগ হয়নি চিটাগং ভাইকিংসের। আজ তারা প্রথমবারের মতো মাঠে নামবে। দিনের প্রথম ম্যাচে দুপুর ২টায় তাদের প্রতিপক্ষ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। অপর ম্যাচে, সন্ধ্যা ৭টায় স্বাগতিক সিলেট মুখোমুখি হবে রাজশাহী কিংসের। টানা দুই ম্যাচ জিতে দারুণ অবস্থানে থাকা সিলেট আবারও জয়ের লক্ষ্যেই মাঠে নামবে। আর প্রথম ম্যাচে হার দেখার পর এবার জয়ে ফেরার লক্ষ্য রাজশাহীর। সিলেটের ফ্র্যাঞ্চাইজি এক বছর বিপিএল এর বাইরে ছিল। অবশেষে এবার সিলেট সিক্সার্স হিসেবে ভিন্ন মালিকানায় আবার তারা ফিরেছে বিপিএলে। ফেরার বছরে তারা বাড়তি সুবিধা হিসেবে পেয়েছে নিজেদের মাঠে প্রথম ম্যাচগুলো খেলার। যে চারদিন সিলেটে খেলা হবে প্রতিদিনই ম্যাচ আছে তাদের। উদ্বোধনী ম্যাচে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটসকে উড়িয়ে দিয়ে দারুণ শুরু করে সিলেট। পরদিন, দ্বিতীয় ম্যাচেও কুমিল্লাকে ৪ উইকেটে হারিয়ে ধারাবাহিকতা ধরে রাখে তারা। তবে কুমিল্লার বিরুদ্ধে ম্যাচটিতে মিডলঅর্ডারে ধস নেমেছিল ব্যাটিংয়ে। তাই একেবারে শেষ ওভারের নাটকীয়তায় জয় তুলে নিতে হয়েছে তাদের। এবার দলটির অধিনায়কত্ব নাসির হোসেনের কাঁধে। বেশ দক্ষতার সঙ্গেই দল পরিচালনা করছেন তিনি সেটা দুই ম্যাচে প্রমাণ দিয়েছেন। উভয় ম্যাচে এ অফস্পিন অলরাউন্ডার দারুণ বোলিং করে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের চাপে রাখতে সক্ষম হয়েছেন। বোলিং আক্রমণের শুরুটাও করেছেন তিনিই। তবে সিলেটের মূল শক্তিটাই হয়ে গেছে ব্যাটিং বিভাগে দুই ওপেনার উপুল থারাঙ্গা ও আন্দ্রে ফ্লেচার। দু’টি ম্যাচেই তারা দলকে দারুণ গতিময় শুরু এনে দেয়াতে ভালভাবে প্রতিপক্ষের টার্গেট ছোঁয়ার পথে এগিয়ে গেছে। আজ তাদের প্রতিপক্ষ চিটাগং ভাইকিংস। গত ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়ে অবশ্য দলের আইকন সাব্বির রহমান সুবিধা করতে পারেননি। মিডলঅর্ডারের ব্যর্থতা কাটিয়ে ওঠার পরীক্ষা আজ সিলেটের জন্য। তবে বোলিং বিভাগটা নাসিরের নেতৃত্বে বেশ ভাল করেছে দুই ম্যাচেই। ইংলিশ পেসার লিয়াস প্লাঙ্কেট ও দেশী পেসার আবুল হোসেন রাজু ভাল বোলিং করেছেন। ক্রিশমার সান্তোকি ও তাইজুল ইসলামও ভাল প্রভাব খাটিয়েছেন। সবাই আজ জ্বলে উঠতে পারলে টানা তিন জয় তুলে নেয়া খুব কঠিন হবে না সিলেটের জন্য।

ড্যারেন সামির নেতৃত্বে গত আসরে চমক দেখিয়েছিল রাজশাহী। তবে এবার হার দিয়ে শুরু করেছে তারা। রংপুর রাইডার্সের বিরুদ্ধে হারের পেছনে মূলত বাজে ব্যাটিংটাই ছিল দায়ী। শেষদিকে সামি ব্যাট হাতে দ্রুতবেগে কিছু রান করাতে অন্তত লড়াইটা করতে পেরেছে তারা। দলের আইকন মুশফিকুর রহীম ভাল করতে পারেননি। ব্যর্থ হয়েছেন মুমিনুল হক। তবে সামির প্রত্যাশা পূরণ করেছেন অফস্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ। তাদের শক্তির ঘাটতি হয়েছে মূলত কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানের অনুপস্থিতির কারণে। ইনজুরিতে মাঠের বাইরে তিনি। আজ ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই রাজশাহীর। সেজন্য ব্যাটসম্যানদের জ্বলে ওঠার অপেক্ষায় থাকবে তারা।

গত আসরে চিটাগং ভাইকিংস শেষ মুহূর্তের দারুণ নৈপুণ্যে শেষ চারে উঠেছিল। এবার তাদের পরীক্ষাটা শুরু হচ্ছে আজ থেকে। বিপিএল শুরুর পর টানা দু’দিন তারা সুযোগ পেয়েছে চারটি ম্যাচ দেখার। উইকেটের আচরণটাও বুঝতে পেরেছে। সম্প্রতিই আন্তর্জাতিক টি২০ ক্রিকেটে রানে ফেরা মারকুটে ওপেনার সৌম্য সরকারই তাদের ব্যাটিংয়ের মূল ভরসা। এছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেট ফর্মের তুঙ্গে থাকা উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়ও আছেন। বিদেশী কোটায় ব্যাটিং শক্তি বাড়ানোর জন্য তারা পেয়েছে লুক রনকি ও অধিনায়ক মিসবাহ-উল-হক ও সিকান্দার রাজাকে। বোলিংয়ে আছেন লিয়াম ডসন, তাসকিন আহমেদ সানজামুল ইসলাম ও শুভাশিস রায়। অলরাউন্ডার কোটায় আছেন একঝাঁক পারফর্মার। জীবন মেন্ডিস, জার্মেইন ব্ল্যাকউড, আলআমিন জুনিয়র, তানবীর হায়দাররা জ্বলে উঠতে পারলে প্রথম ম্যাচেই জয় তুলে নেয়া খুব কঠিন হবে না চিটাগংয়ের জন্য। প্রতিপক্ষ হিসেবে কুমিল্লাকে পেয়েছে তারা এই প্রথম পরীক্ষায়। তামিম ইকবালের ইনজুরির জন্য ব্যাটিং শক্তির ঘাটতি প্রথম ম্যাচে বেশ ভালভাবেই দেখা গেছে দলটির মধ্যে। ইমরুল কায়েস, লিটন দাসরা জ্বলে উঠতে পারেননি। তবে মারলন স্যামুয়েলস দারুণ একটি ইনিংস খেলেছিলেন। এবার কয়েকজন পাকিস্তানী খেলোয়াড়কে দলে ভিড়িয়ে সমস্যায় পড়েছে তারা। ১৭ নবেম্বরের আগে তারা চলতি বিপিএলে খেলতে পারবেন না পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) ছাড়পত্র না পাওয়াতে। তবে এরপরও ডোয়াইন ব্রাভো, গত আসরে ব্যাটে-বলে দুরন্ত মোহাম্মদ নবি, রশিদ খানদের নিয়ে এখনও বেশ শক্ত দল তারা। এছাড়া উদীয়মান পেস অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন তো আছেনই। সবাইকে নিয়ে আজ ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই তাদের।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

November 2017
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares